রাজশাহী বৃহঃস্পতিবার, ২৫শে ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১৩ই ফাল্গুন ১৪২৭

সম্মেলন আগামীকাল

রাজশাহী মহানগর ছাত্রলীগের নেতৃত্বে আসছে কারা


প্রকাশিত:
২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ১১:১৪

আপডেট:
২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ১৩:৫০

নেতাকর্মীদের দীর্ঘ অপেক্ষার পর হতে যাচ্ছে রাজশাহী মহানগর ছাত্রলীগের সম্মেলন। আগামীকাল বুধবার সকাল ১০ টায় রাজশাহী কলেজের শহীদ মিনার চত্ত্বরে সম্মেলনের প্রথম অধিবেশন অনুষ্ঠিত হবে। সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ও মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন।

এর আগে গত ১৭ ফেব্রুয়ারি কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ সভাপতি আল-নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য সাক্ষরিত এক চিঠিতে নগর ছাত্রলীগের বার্ষিক সম্মেলনের জন্য প্রস্তুতি নিতে বলা হয়। এদিকে, ছাত্রলীগের বার্ষিক এ সম্মেলন ঘিরে পদ পেতে বহু আগে থেকেই দৌড়-ঝাঁপ করতে দেখা গেছে নগর ছাত্রলীগের নেতাদের। তবে কারা নেতৃত্বে আসছেন তা দেখতে অপেক্ষা করতে হবে আরো একটি দিন।

বর্তমানে মহানগর ছাত্রলীগের পদ পেতে চেষ্টা করছেন অনেকেই। সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক এই দুটি পদে পদপ্রত্যাশী রয়েছেন প্রায় ১৫ জনের অধিক ছাত্রনেতা। তার মধ্যে সভাপতি পদপ্রত্যাশীরা হলেন- নূর মোহাম্মদ সিয়াম, আবদুল্লাহ আল দ্বীপ, পিয়ারুল ইসলাম পাপ্পু, তাসকিন পারভেজ সাতিল ও ফজলে রাব্বি। সাধারণ সম্পাদক পদপ্রত্যাশীরা হলেন- সিরাজুম মুবিন সবুজ, সাফ্ফাত হোসেন রিয়াদ, রাশিক দত্ত, আরেফিন পারভেজ বন্ধন, মারুফ হোসেন, মেহেদী হাসান রিমেল (রিগেন), হাসান রেজা, সবুজ আহমেদ, নাইমুল হাসান নাঈম, মাইনুল ইসলাম বাপ্পি ও শান্তা খাতুন। এর বাইরেও অনেকের নাম শোনা যাচ্ছে।

তবে নেতৃত্বের লড়াইয়ে যারা এগিয়ে আছেন তাদের মধ্যে অন্যতম হলেন রাজশাহী কলেজ ছাত্রলীগের বর্তমান সভাপতি নূর মোহাম্মদ সিয়াম। পরিচ্ছন্ন ইমেজ ও বিনয়ী এই ছাত্রনেতা সভাপতি নির্বাচিত হতে পারেন বলে আলোচনা চলছে। এছাড়াও গুরুত্বপূর্ণ দুটি পদে আসতে আলোচনায় আছেন আবদুল্লাহ আল দ্বীপ, পিয়ারুল ইসলাম পাপ্পু, ফজলে রাব্বি, সিরাজুম মুবিন সবুজ, সাফ্ফাত হোসেন রিয়াদ, রাশিক দত্ত ও আরেফিন পারভেজ বন্ধন।

এর আগে ২০১৪ সালের ১০ সেপ্টেম্বর রাজশাহী মহানগর ছাত্রলীগের কমিটি গঠন করা হয়। রকি কুমার ঘোষকে সভাপতি, মাহমুদ হাসান রাজিবকে সাধারণ সম্পাদক ও সাংগঠনিক সম্পাদক পদে পাঁচ জনসহ মোট ১৬১ সদস্যের কমিটি ঘোষণা করে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ। নির্বাচনের পরের বছর ২০১৫ সালে মেয়াদ শেষ হয় বর্তমান কমিটির। ছাত্রলীগের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী কমিটির মেয়াদ শেষ হবার ৯০ দিনের মধ্যে নতুন কমিটি করার নির্দেশনা থাকলেও তা কার্যকর করা হয়নি। নেতৃত্বের গুণাবলী থাকার পরেও এতদিন পদ জুটেনি বহু ছাত্র নেতার। এতে হতাশও হয়েছিলেন তারা। অনেকটাই নিস্ক্রিয়ও হয়ে পড়ছিল নগর ছাত্রলীগ। অবশেষে আশা দেখছেন পদ প্রত্যাশীসহ মহানগর ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ।

নতুন কমিটিতে সুযোগ পেলে সুযোগ পেলে রাজশাহী মহানগর ছাত্রলীগকে গতিশীল করার লক্ষ্যে কাজ করতে চান নেতারা। পাশাপাশি অছাত্র, বিবাহিত, গঠনতন্ত্র বিরোধী কমিটি বাতিল করে নগর ছাত্রলীগকে নতুন করে চাঙ্গা করতে চান তারা।

ইতোমধ্যে সম্মেলন সফল করতে ডাঃ আনিকা ফারিহা জামান অর্ণাকে আহ্বায়ক, রকি কুমার ষোষকে যুগ্ম আহ্বায়ক ও মাহমুদ হাসান রাজিবকে সদস্য সচিব করে গঠন করা হয়েছে প্রস্তুতি কমিটি। এছাড়া প্রস্তুতি কমিটির অধীনে সম্মেলনের সার্বিক দেখভালে গঠন করা হয়েছে আইন শৃঙ্খলা, প্রচার, অর্থ, চিকিৎসা, অভ্যর্থনা, আপ্যায়ন, দপ্তর, সাংস্কৃতিক, মঞ্চ, সাজ সজ্জাসহ বিভিন্ন উপ-কমিটি।

সম্মেলনের প্রস্তুতি নিয়ে মহানগর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মাহমুদ হাসান রাজিব বলেন, সম্মেলনকে সার্বিকভাবে সফল করতে আমরা প্রস্তুতি সভা করেছি। মহানগর ছাত্রলীগের সকলস্তরের কর্মীদের নিয়ে সম্মেলন সফল করতে আইন শৃঙ্খলা, প্রচার, অর্থ, চিকিৎসা, অভ্যর্থনা, আপ্যায়ন, সাংস্কৃতিক, সাজ সজ্জাসহ বিভিন্ন কমিটি ও উপ-কমিটি গঠন করা হয়েছে। তারা সার্বিকভাবে সম্মেলন সফল করতে কাজ করবেন। যারা পদপ্রত্যাশী আছেন তাদের নিজেদের প্রচারণার বাইরেও মহানগর ছাত্রলীগের উদ্যোগে নগরীর বিভিন্ন জায়গায় ব্যানার, ফেস্টুনসহ বিভিন্ন সাজসজ্জা করা হয়েছে। সর্বপরি একটি সফল সম্মেলনের মাধ্যমে দায়িত্ব থেকে অব্যাহতির ইচ্ছা ব্যক্ত করেন তিনি।

বুধবার সকাল ১০টায় রাজশাহী কলেজে সম্মেলনের উদ্বোধন করবেন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয়। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন মহানগর আওয়ামীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার। প্রধান বক্তা হিসেবে থাকবেন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য।

এছাড়াও মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি রকি কুমার ষোষের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মাহমুদ হাসান রাজিবের সঞ্চালনায় সম্মেলনে সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি ও রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ডাঃ আনিকা ফারিহা জামান অর্ণা, ছাত্রলীগের গণশিক্ষা সম্পাদক আব্দুল্লাহ হীল বারী, মহানগর ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি শফিকুজ্জামান শফিক, সাবেক সাধারণ সম্পাদক মীর তৌহিদুর রহমান কিটু, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি হাবিব খান, সাধারণ সম্পাদক মেরাজুল ইসলাম মেরাজ, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি গোলাম কিবরিয়া, সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল আহমেদ রুনু, রুয়েট ছাত্রলীগের সভাপতি নাইম রহমান নিবিড় ও সাধারণ সম্পাদক চৌধুরী মাহফুজুর রহমান তপু।

 

আরপি/এমও



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top