রাজশাহী বৃহঃস্পতিবার, ২২শে ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১১ই ফাল্গুন ১৪৩০

চাঁপাইনবাবগঞ্জে ডিভাইস নিয়ে প্রাইমারি পরীক্ষা দেওয়ায় আটক এক


প্রকাশিত:
২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ১৯:০৫

আপডেট:
২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ০৯:৩৬

ছবি: গ্রেফতার আসামি

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় অসদুপায় অবলম্বন করার দায়ে চাঁপাইনবাবগঞ্জে এক পরীক্ষার্থীকে আটক করেছে পুলিশ।

শুক্রবার (২ ফেব্রুয়ারী) সকালে চাঁপাইনবাবগঞ্জ পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট কেন্দ্রের একটি কক্ষ থেকে তাকে আটক করে পুলিশ। এ সময় কানের মধ্যে ডিজিটাল ডিভাইস ব্যবহার করে সে পরীক্ষা দিচ্ছিলো বলে জানান কেন্দ্র প্রধান।

আটককৃত পরীক্ষার্থী শিবগঞ্জ উপজেলার বাজিতপুর গ্রামের এনামুল হকের ছেলে আজিম রেজা (২৯)।

জানা যায়, চাঁপাইনবাবগঞ্জ পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট কেন্দ্রের একটি কক্ষে পরীক্ষা দিচ্ছিলেন আজিম রেজা। এ সময় কক্ষে থাকা শিক্ষকদের সন্দেহ হলে দেহ তল্লাশি করতে চাইলে সে দৌড়ে পালিয়ে যাবার চেষ্টাকালে দায়িত্বরত পুলিশ সদস্যরা তাকে আটক করে। পরে তার দেহ তল্লাশি করে এসব ডিজিটাল ডিভাইস পাওয়া যায়।

এদিকে আটকের পর কানে তীব্র ব্যথা অনুভূত হলে ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা হাসপাতালের জরুরী বিভাগে ভর্তি করা হয় আজিম রেজাকে। পরে চিকিৎসক কানের মধ্যে থেকে একটি ডিভাইস বের করেন। হাসপাতালের জরুরী বিভাগের মেডিকেল অফিসার ডা. মো. আব্দুর রহমান বলেন, কানের ভেতরে পাওয়া ডিজিটাল ডিভাইস বের করার পর আজিম রেজার কান ব্যাথা কিছুটা কমেছে। তবে কি ধরনের ডিভাইস তা পরীক্ষা-নিরীক্ষার আগে নিশ্চিত করে বলা যাবে না।

এনিয়ে চাঁপাইনবাবগঞ্জ পলিটেকনিক ইন্সটিটিউটের অধ্যক্ষ এজেএম মাসুদুর রহমান জানান, ডিজিটাল ডিভাইসসহ আটকের পর আজিম রেজাকে পুলিশের হাতে তুলে দেয়া হয়। তার কাছে যে ইলেকট্রনিক্স ডিভাইস পাওয়া গেছে তা সম্পর্কে আমাদের ধারনা নেই। একেবারেই নতুন ধরনের ডিভাইস ব্যবহার করে পরীক্ষায় অসদুপায় অবলম্বন করে পরীক্ষা দিচ্ছিলো আজিম।

এ বিষয়ে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিন্টু রহমান জানান, কানের মধ্যে ও বগলে দুটি ডিজিটাল ডিভাইস ব্যবহার করে পরীক্ষা দেয়ার অভিযোগে আটক করা হয় আজিমকে। আটককৃত পরীক্ষার্থীর বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। 

 

 

আরপি/এসআর



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top