রাজশাহী শুক্রবার, ১৪ই জুন ২০২৪, ১লা আষাঢ় ১৪৩১


নাটোরে রেলের তৃতীয় শ্রেণির কর্মচারীদের ধর্মঘট


প্রকাশিত:
১৭ অক্টোবর ২০২২ ০২:৪০

আপডেট:
১৭ অক্টোবর ২০২২ ০২:৪১

সংগৃহিত

বেতন বৃদ্ধির দাবিতে নাটোরে রেলের তৃতীয় শ্রেণির অস্থায়ী কর্মচারীরা (টিএলআর) ধর্মঘট পালন করছেন। সকালে ধর্মঘট শুরু করার পর রাজশাহী থেকে চিলাহাটিগামী তিতুমীর এক্সপ্রেস ট্রেন নাটোর স্টেশনে আটকা পড়ে।

জানা যায়, পরে নির্ধারিত সময়ের চেয়ে প্রায় দেড় ঘণ্টা পর ট্রেনটি গন্তব্যের উদ্দেশে নাটোর স্টেশন ছেড়ে যায়। এ সময় ট্রেনের যাত্রীদের অসহনীয় দুর্ভোগ পোহাতে হয়েছে।

রোববার (১৬ অক্টোবর) সকাল থেকে নাটোর স্টেশনে কর্মরত রেলের তৃতীয় শ্রেণির অস্থায়ী কর্মচারীরা তাদের অস্থায়ী পদ থেকে স্থায়ীকরণ এবং নিয়োগবিধি ২০২০ সংশোধন করে পূর্বের মতো চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারীদের অষ্টম শ্রেণি পাশ রাখ সহ ৬ দফা দাবিতে এই কর্মবিরতি শুরু করেছে।

নাটোর স্টেশনের সহকারী স্টেশন মাস্টার কামরুন নাহার জানান,অস্থায়ী (টিএলআর) কর্মচারীরা রোববার সকাল ৬টা থেকে ধর্মঘট শুরু করায় ট্রেনের সিগনাল দেওয়া সম্ভব হয়নি। এ সময় তিতুমীর ট্রেনটি আউটার সিগনালে পড়ে ছিল। পরে সিগনাল ছাড়াই (ওপিটি) ট্রেনটি নাটোর স্টেশন প্লাটফর্মে ৯ টা ১৮ মিনিটে প্রবেশ করানো হয় এবং চার মিনিট বিরতি দিয়ে ৯টা ২২ মিনিটে ট্রেনটি গন্তব্যের উদ্দেশে ছেড়ে যায়। ট্রেনটি নাটোর স্টেশনে প্রবেশের নির্ধারিত সময় ছিল সকাল ৭ টা ৪৭ মিনিটের সময়।

স্টেশন মাস্টার বলেন, ধর্মঘটের কারণে চিলাহাটিগামী তিতুমীর এক্সপ্রেস ট্রেনটি নির্ধারিত সময়ের প্রায় দুই ঘণ্টা বেশি সময় আউটার সিগনালে আটকা ছিল। বর্তমানে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে। তবে একজন স্থায়ী কর্মচারী দিয়ে কাজ করতে হচ্ছে। ফলে নাটোর স্টেশনে ক্রসিং হবে না।

আরপি/ এসএইচ ০২



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top