রাজশাহী বৃহঃস্পতিবার, ৩০শে মে ২০২৪, ১৭ই জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১


নাটোর জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত


প্রকাশিত:
২১ ফেব্রুয়ারি ২০২২ ০৭:২৮

আপডেট:
৩০ মে ২০২৪ ০৯:২৭

ছবি: ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন

উৎসব মুখর পরিবেশে নাটোর জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন-২০২২ অনুষ্ঠিত হয়েছে। রবিবার শংকর গোবিন্দ চৌধুরী স্টেডিয়ামে এই সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

সম্মেলনে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। প্রধান অতিথির বক্তব্যে ওবায়দুল কাদের বলেন, বাংলাদেশে ব্যাপক উন্নয়ন করছে সরকার। শেখ হাসিনার উন্নয়ন ও গর্বের অর্জনের জয়যাত্রা নিয়ে আমরা এগিয়ে যাব।

তিনি আরো বলেন, আওয়ামী লীগে অপরাধী, বিশৃঙ্খলকারী, চাঁদাবাজ, দুর্নীতিবাজ ও ভূমিদস্যুর কোন স্থান নেই। যারা দলের শৃঙ্খলা নষ্ট করেছে, দলকে ছোট করেছে, সরকারের উন্নয়ন ম্লান করেছে, তাদের প্রত্যেকের তালিকা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার খাতায় লেখা হয়েছে।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, বিএনপির এখন কথা বলার মুখ নেই। তারা আন্দোলনে নেই, তাদের কোন বিজয়ের উল্লাস নেই। বিএনপির রাজনীতি খাদে পড়েছে। বিএনপির লাফালাফি আর বেশি দিন থাকবে না।

আওয়ামী লীগের নেতাদের জনগণের সাথে ভালো ব্যবহার করার নির্দেশ দিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, সরকারের উন্নয়ন ও নেতাদের ভালো ব্যবহার যখন ব্যাটে-বলে মিলে যাবে, তখন আওয়ামী লীগের বিজয় কেউ ঠেকাতে পারবে না।

সম্মেলনে উদ্বোধক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য আব্দুর রহমান। তিনি তাঁর বক্তব্যে বলেন, বাংলাদেশে তত্ত্বাবধায়ক সরকার আর কখনো ফিরে আসবে না। আইনের মাধ্যমে নির্বাচন কমিশন গঠন করা হচ্ছে। নির্বাচন কমিশনের অধীনে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

সম্মেলনে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য ও রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন। করোনাকালীন সময়ে দেশের মানুষকে দফায় দফায় খাদ্য সামগ্রী প্রদান করেছেন প্রধানমন্ত্রী। করোনার বিপর্যয়ের মধ্যেও দেশকে সামনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছেন। উন্নয়নের এই ধারাহিকতা রক্ষা করতে হবে।

তিনি আরো বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয় সম্প্রতি বলেছেন, ‘২০০১-২০০৬ সালে বিএনপি দেশকে ৫০ বছর পিছিয়ে নিয়ে গেছে।’ বিএনপির জিয়াউর রহমান, খালেদা জিয়া, তারেক রহমান এমন অপর্কম নেই, যা তারা করেনি। সেই বিএনপির কাছ থেকে আমাদের গণতন্ত্র শিখতে হবে না।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এবং তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেন, নির্বাচন যত সামনে আসছে, বিএনপি উকিঝুঁকি মারা শুরু করেছে। আর বিএনপির নানা ষড়যন্ত্র তো আছেই। এ ব্যাপারে সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে।

নাটোর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল কুদ্দুস এমপির সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম শিমুলের সঞ্চালনায় সম্মেলনে প্রধান বক্তা হিসেবে আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম কামাল হোসেন, বিশেষ অতিথি হিসেবে স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক ডা. রোকেয়া সুলতানা, কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য প্রফেসর মেরিনা জাহান এমপি, সদস্য বেগম আখতার জাহান, আব্দুল আওয়াল শামীম বক্তব্য দেন।

অন্যদের মধ্যে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, নাটোর-১ আসনের সংসদ সদস্য শহিদুল ইসলাম বকুল, সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য রত্না আহমেদ বক্তব্য রাখেন।

এর আগে শংকর গোবিন্দ চৌধুরী স্টেডিয়ামে জাতীয় ও দলীয় পতাকা এবং জাতীয় সঙ্গীতের মাধ্যমে সম্মেলন শুরু হয়। এরপর বেলুন ও পায়রা উড়ানোর পর জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ।

সম্মেলনের প্রথম অধিবেশনে প্রথা অনুযায়ী জেলা আওয়ামী লীগের বর্তমান কমিটিকে বিলুপ্ত ঘোষণা করা হয়। সম্মেলন শেষে দ্বিতীয় অধিবেশনে কেন্দ্রীয় এবং জেলার নেতাদের সঙ্গে আলোচনা করে সভাপতি পদে অধ্যাপক আব্দুল কুদ্দুস এমপি ও সাধারণ সম্পাদক পদে শরিফুল ইসলাম রমজানের নাম ঘোষণা করা হয়।

 

 

 

আরপি/এসআর



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top