রাজশাহী বৃহঃস্পতিবার, ২৩শে মে ২০২৪, ৯ই জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১


নাটোরে শিক্ষিকার স্বামীর হাতে প্রধান শিক্ষক লাঞ্ছিত


প্রকাশিত:
২২ নভেম্বর ২০১৯ ০৫:১০

আপডেট:
২৩ মে ২০২৪ ০২:১২

প্রতীকি ছবি

নাটোরের বড়াইগ্রামে নিজ স্ত্রীকে গ্রামের স্কুলে বদলি করিয়ে আনতে না পেরে ছলেমান আলী (৫২) নামে এক ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষককে জনসম্মুখে লাঞ্ছিত করাসহ এলোপাতাড়ি মারপিটের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

অভিযুক্ত শাহীন আলম জামাইদিঘা গ্রামের ময়লাল হোসেনের ছেলে ও বক্ষত্রপার গোপালপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা রোকসানা বেগমের স্বামী।

এঘটনায় বৃহস্পতিবার ভুক্তভোগী শিক্ষক থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন। 

আহত ছলেমান আলী জানান, কিছুদিন যাবৎ শাহীন আলম তার স্ত্রী বক্ষত্রপার গোপালপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে কর্মরত সহকারী শিক্ষিকা রোকসানা বেগমকে বদলি করে জামাইদিঘা বিদ্যালয়ে আনার চেষ্টা করছিলেন। সে জন্য তিনি কিছুদিন যাবৎ জামাইদিঘা বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক ছলেমান আলীকে স্বেচ্ছায় অন্যত্র বদলি হয়ে চলে যেতে চাপ দিচ্ছিলেন।

কিন্তু তাতে রাজি না হওয়ায় তাকে দেখে নেয়ার হুমকি দেন। বুধবার সকালে তিনি বিদ্যালয়ে যাওয়ার পথে শাহীন আলম পথরোধ করে পুনরায় তাকে বদলির জন্য চাপ দেন। এ সময় ছলেমান আলী তাকে শিক্ষা অফিসের সঙ্গে যোগাযোগ করতে বললে শাহীন ক্ষিপ্ত হয়ে তাকে এলোপাতাড়ি মারপিট শুরু করেন। পরে স্থানীয়রা এসে তাকে উদ্ধার করেন। রাতে তাকে বনপাড়ার একটি ক্লিনিকে চিকিৎসা দেয়া হয়।

অভিযুক্ত শাহীন আলমের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি মারপিটের অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, শুধু ধাক্কাধাক্কি হয়েছে।

বড়াইগ্রাম থানার ওসি দিলীপ কুমার দাস জানান, এ ব্যাপারে লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

আরপি/আআ



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top