রাজশাহী বৃহঃস্পতিবার, ৩০শে মে ২০২৪, ১৭ই জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

চাঁপাইনবাবগঞ্জে ককটেল ফাটিয়ে হত্যা নিয়ে রহস্য


প্রকাশিত:
১১ এপ্রিল ২০২৩ ১৮:১৯

আপডেট:
৩০ মে ২০২৪ ১০:২৩

ফাইল ছবি

চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার সুন্দরপুর ইউনিয়নে রাতের আঁধারে ককটেলের বিষ্ফোরণ ঘটিয়ে এক ব্যাক্তিকে কুপিয়ে হত্যা চেষ্টার ঘটনা ঘটেছে।

রোববার (৯ এপ্রিল) দিবাগত রাত সাড়ে ১১ টার দিকে সাইকেলযোগে বাসায় ফেরার পথে নিজ বাড়ির ৪০০ গজ দূরে এই ঘটনা ঘটিয়ে পালিয়ে যায় দূর্বৃত্তরা।

যদিও উন্নত চিকিৎসা নিতে পথিমধ্যেই মৃত্যু ঘটেছে আহত ব্যক্তির। আর এই হত্যার মাধ্যমে নতুন এক হত্যাকান্ডের সূচনা হয়েছে বলে অভিমত পোষণ করেছেন স্থানীয়রা।

নিহত ব্যক্তি সদর উপজেলার সুন্দরপুর ইউনিয়নের কালিনগর বাবলাবোনা গ্রামের খান মোহাম্মদ গুদোড়ের ছেলে মনিরুল ইসলাম (৫০)।

স্থানীয় বাসিন্দা, নিহতের স্বজন ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, মনিরুল ইসলাম রাতে ইংলিশ মোড় থেকে বাইসাইকেল চালিয়ে নিজ বাড়িতে ফিরছিলেন। এ সময় বাড়ির কাছাকাছি আসলে হঠাৎ একটি ককটেলের বিস্ফোরণ ঘটিয়ে তার গতিরোধ করা হয়। আর সাইকেল থেকে নামা মাত্রই কয়েকজন অজ্ঞাত তার শরীরের বিভিন্ন অংশে কুপিয়ে জখম করে ফেলে পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয় বাসিন্দা ও পথচারীরা রক্তাক্ত অবস্থায় রাস্তায় পড়ে থাকতে দেখে তাকে উদ্ধার করে ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা হাসপাতালে ভর্তি করে। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করলে পথেই মৃত্যু হয় মনিরুলের।

উদ্ধারকারী ও স্থানীয় বাসিন্দা আল আমিন জানান, চাকু দিয়ে হাত-পা ও শরীরের বিভিন্ন অংশে আঘাত করে গুরুতর জখম করে দ্রুত পালিয়ে যায় দূর্বৃত্তরা। এর আগে রাস্তার পাশ থেকে ককটেল মেরে সাইকেল থেকে ফেলে দেই মনিরুলকে। পরে রাস্তার ওপর ফেলে অসংখ্যবার কুপিয়েছে। আর উদ্ধারের সময় তার একটি হাত বিচ্ছিন্ন ছিল।

এ বিষয়ে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি-তদন্ত) মাহফুজুল হক চৌধুরী বলেন, রাতেই হত্যাকান্ডের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছিল। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেলা হাসপাতালের মর্গে রয়েছে। কে বা কারা কি কারণে মনিরুলকে হত্যা করেছে রহস্য উদঘাটনে পুলিশ কাজ করছে। এছাড়াও অপরাধীদের শনাক্ত করে আটকের জন্য অভিযান চলমান রয়েছে বলে জানান তিনি।

 

 

আরপি/এসআর-০৪


বিষয়: হত্যা


আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top