রাজশাহী বৃহঃস্পতিবার, ২২শে ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১১ই ফাল্গুন ১৪৩০

শিক্ষক হত্যার ১৭ বছর পর রায়, ২ জনের যাবজ্জীবন


প্রকাশিত:
২৯ আগস্ট ২০২৩ ০৬:১৯

আপডেট:
২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ০৯:৪৭

ছবি: রাজশাহী পোস্ট

চাঁপাইনবাবগঞ্জে দীর্ঘ ১৭ বছর পর আজিনুল হক নামে এক শিক্ষক হত্যাকান্ডের মামলার রায় হয়েছে। রায়ে দুইজন হত্যাকারীকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড দিয়েছে আদালত। একই সঙ্গে প্রত্যেককে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো ৬ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করা হয়েছে।

সোমবার (২৮ আগস্ট) দুপুরে চাঁপাইনবাবগঞ্জের অতিরিক্ত দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. রবিউল ইসলাম এই দন্ডাদেশ প্রদান করেন। 

আরও পড়ুন: রাবি: সাবেক ভিসি সোবহানকন্যা সানজানাকে শোকজ

দন্ডপ্রাপ্তরা হলেন- চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার চর বারোরশিয়া তাহির হাজির টোলা গ্রামের মাজেদ আলীর ছেলে হুমায়ন ও একই গ্রামের ময়েজ উদ্দিনের ছেলে আব্দুল বারী। মামলায় অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় ১৬ জনকে বেকসুর খালাস দিয়েছেন বিচারক।

এ বিষয়ে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবি রবিউল ইসলাম জানান, পূর্ব শক্রতা ও জমি জমা নিয়ে বিরোধের জের ধরে ২০০৫ সালের ১৩ নভেম্বর ইসলামপুর ও দেবীনগর ইউনিয়নের শেষ সীমানায় কষ্টরা মাঠে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে শিক্ষক আজিনুল হককে গুরুতর জখম করে তার প্রতিপক্ষ। এ সময় তাকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট চাঁপাইনবাবগঞ্জ আধুনিক হাসপাতালে নিয়ে আসলে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করেন ওই সময়ে কর্তব্যরত চিকিৎসক। পরে রামেকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান ওই শিক্ষক। ওই ঘটনার পরের দিনে ১৪ নভেম্বর নিহত আজিনুল হকের ছেলে আনোয়ার হোসেন বাদি হয়ে নবাবগঞ্জ সদর মডেল থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।

আরও পড়ুন: বিএনপি ক্ষমতায় গেলে গণতন্ত্রকে গিলে খাবে: কাদের

পরে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা নবাবগঞ্জ থানার তৎকালিন ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আহসানুল হক ২০০৮ সালের ৭ জানুয়ারি আদালতে অভিযোগ পত্র দাখিল করেন।

মামলার দীর্ঘ শুনানী ও সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে আসামীদের উপস্থিতিতে ১৬ জনকে বেকসুর খালাস দিলেও হত্যাকান্ডে হুমায়ন ও বারীর সংশ্লিষ্টতা পেয়ে এই দন্ডাদেশ প্রদান করেন বিচারক মো. রবিউল ইসলাম। 

 

 

আরপি/এসআর-০২



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top