রাজশাহী রবিবার, ২৫শে ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৪ই ফাল্গুন ১৪৩০


মেডিকেল প্রশ্ন ফাঁস: চিকিৎসক-অভিভাবকসহ ৬ জনের রিমান্ড


প্রকাশিত:
১৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩ ০৪:২৩

আপডেট:
১৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩ ০৪:৪২

প্রতীকী ছবি

মেডিকেল কলেজের ভর্তি পরীক্ষার প্রশ্ন ফাঁসের মামলায় ‘থ্রি ডক্টরস কোচিং সেন্টারের’ প্রধান ডা. মো. ইউনুচ উজ্জামান খাঁন তারিমসহ তিনজনকে চারদিন এবং অভিভাবক মতিঝিল আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষিকা মাকসুদা আক্তার মালাসহ তিনজনকে দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

রোববার (১৭ সেপ্টেম্বর) ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মইনুল ইসলাম এ আদেশ দেন।

রিমান্ডে নেওয়া আসামিরা হলেন- ডা. ইউনুচ উজ্জামান খাঁন তারিম (৪০), ডা. অনিমেষ কুমার কুন্ডু (৩৩) ও ডা. কে এম বশিরুল হক (৪৮)।

অন্যদিকে দুইদিনের জন্য রিমান্ডে যাওয়া আসামি হলেন- ডা. জাকারিয়া আশরাফ (২৬), মতিঝিল আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষিকা মাকসুদা আক্তার মালা (৫২) ও জাকিয়া ফারইভা ইভানা (৩৫)। এছাড়া চার আসামির রিমান্ড নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আদালত। তারা হলেন-ডা. মুসতাহিন হাসান লামিয়া (২৫), ডা. নাজিয়া মেহজাবিন তিশা (২৪), মৈত্রী সাহা (২৭) ও ডা. সাবরিনা নুসরাত রেজা টুসী (২৫)।

এ দিন আসামিদের আদালতে হাজির করে প্রত্যেককে ১০ দিনের রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সিআইডির অতিরিক্ত বিশেষ পুলিশ সুপার জুয়েল চাকমা। অপরদিকে আসামিদের রিমান্ড বাতিল ও জামিন চেয়ে আবেদন করেন তাদের আইনজীবীরা। উভয়পক্ষের শুনানি শেষে বিচারক এ আদেশ দেন।

আরও পড়ুন: নির্বাচন ছাড়া বিএনপির রক্ষা পাওয়ার উপায় নেই: নানক

এ মামলায় মোট ১৭ জন আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন। গত ২২ আগস্ট আদালতে স্বীকারোক্তি দেন ডা. শর্মিষ্ঠা মন্ডল (২৬) ও ডা. লুইস সৌরভ সরকার (৩০)।

দেশের মেডিকেল কলেজের ভর্তি পরীক্ষাগুলোতে নিয়মিত প্রশ্ন ফাঁসকারী সিন্ডিকেটের খোঁজ পায় সিআইডির সাইবার পুলিশ। এ ঘটনায় ২০২০ সালের ২০ জুলাই মিরপুর মডেল থানায় একটি মামলা করা হয়। এ মামলার তদন্তে সম্প্রতি চাঞ্চল্যকর তথ্য পায় সিআইডি। এরপর এ মামলায় ডা. তারিমসহ তার সহযোগীদের গ্রেফতার করে পুলিশ।

 

 

 

আরপি/এসআর-১৪



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top