রাজশাহী রবিবার, ২৭শে নভেম্বর ২০২২, ১৩ই অগ্রহায়ণ ১৪২৯


ইডেন ছাত্রলীগ সভাপতি-সম্পাদকের বিরুদ্ধে মামলা


প্রকাশিত:
২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১৭:১১

আপডেট:
২৭ নভেম্বর ২০২২ ০৫:৫২

সংগৃহিত

ইডেন মহিলা কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি তামান্না জেসমিন রিভা ও সাধারণ সম্পাদক মোছা. রাজিয়া সুলতানাসহ আটজনের বিরুদ্ধে করা মামলা তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। একই সংগঠনের সহ-সভাপতি জান্নাতুল ফেরদৌসকে রুম থেকে টেনেহিঁচড়ে বের করে নির্যাতনের অভিযোগে মামলাটি করেন ফেরদৌসি।

বুধবার (২৮ সেপ্টেম্বর) ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সৈয়দ মোস্তফা রেজা নুরের আদালত মামলাটি তদন্তের নির্দেশ দেন।

মামলার অন্য আসামিরা হলেন- নুঝাত ফারিয়া রোকসানা, মিম ইসলাম, নূর জাহান, ঋতু আক্তার, আনিকা তাবাসুম স্বর্ণা ও কামরুন নাহার জ্যোতি।

এছাড়া মামলায় অজ্ঞাতনামা আরও ২৫-৩০ জনকে আসামি করা হয়েছে। বাদীর জবানবন্দি নেওয়ার পর এ বিষয়ে পরে আদেশ দেওয়া হবে বলে আদালত জানিয়েছেন। বাদীর আইনজীবী নূর-ই-আলম এ তথ্য গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন।

সিট বাণিজ্য ও চাঁদাবাজির অভিযোগ করে গণমাধ্যমে বক্তব্য দেওয়ায় গত শনিবার রাতে সহসভাপতি জান্নাতুল ফেরদৌসকে আটকে রেখে হেনস্তা ও মারধরের অভিযোগ ওঠে ইডেন কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে।

ওই ঘটনায় সেই রাতে ছাত্রলীগের দুই পক্ষের অবস্থানে কলেজ ক্যাম্পাসে উত্তেজনা তৈরি হয়েছে। ঘটনা তদন্তে গতকাল সকালে ছাত্রলীগ একটি কমিটি করে। এছাড়া জান্নাতুল প্রশাসনের কাছে লিখিত অভিযোগ দেয়।

ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনার পরদিন কলেজ ছাত্রলীগের কমিটি স্থগিত করেছে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ। একইসঙ্গে সাংগঠনিক শৃঙ্খলাভঙ্গের দায়ে ১৬ জনকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হয়। তারা হলেন ইডেন মহিলা কলেজ ছাত্রলীগের সহসভাপতি সোনালি আক্তার, সুস্মিতা বাড়ৈ, জেবুন্নাহার শিলা, কল্পনা বেগম, জান্নাতুল ফেরদৌস, আফরোজা রশ্মি, মারজানা উর্মি, সানজিদা পারভীন চৌধুরী, এস এম মিলি, সাদিয়া জাহান সাথী, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ফাতেমা খানম বিন্তি ও সাংগঠনিক সম্পাদক সামিয়া আক্তার বৈশাখি এবং কর্মী রাফিয়া নীলা, নোশিন শার্মিলী, জান্নাতুল লিমা, সূচনা আক্তার।

এমন সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে ২৬ সেপ্টেম্বর সংবাদ সম্মেলন করে বহিষ্কৃতরা। সেখানে বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহারের দাবি জানানো হয়। না হলে আমরণ অনশনে যাওয়ার কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়।

সংবাদ সম্মেলন শেষে ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে যান তারা। সেখানে ঘণ্টা দেড়েক থেকে বেরোনোর পর অনশন কর্মসূচি থেকে সরে আসার ঘোষণা দেন বহিষ্কৃত নেত্রীরা।

আরপি/ এসএইচ



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top