রাজশাহী মঙ্গলবার, ১৬ই জুলাই ২০২৪, ২রা শ্রাবণ ১৪৩১


মাস্ক তৈরিতে বাংলাদেশকে সাহায্য করছে ডব্লিউএইচও


প্রকাশিত:
৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ ১৭:৪০

আপডেট:
৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ ১৭:৫৪

ছবি: সংগৃহীত

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার দেয়া নিয়ম মেনে স্থানীয় জনগোষ্ঠীর ব্যবহার উপযোগী নন-মেডিকেল ফ্যাব্রিক মাস্ক উৎপাদনে উৎপাদকদের জন্য ন্যূনতম চাহিদা সম্বলিত গাইডলাইন প্রস্তুত করেছে বাংলাদেশ। নির্দিষ্ট মানের সমন্বয়ে তৈরি এ গাইডলাইন ইতোমধ্যে স্থানীয় উৎপাদক ও বেসরকারি সংস্থাগুলোকে সরবরাহ করা হয়েছে।

বৈশ্বিক বিভিন্ন সংস্থার সহযোগিতায় মাস্ক উৎপাদনের জন্য নির্দিষ্ট মানের এ গাইডলাইন তৈরি করেছে ওষুধ প্রশাসন অধিদফতর। জাতিসংঘ ঢাকা কার্যালয় থেকে দেয়া এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

গাইডলাইনে মাস্ক উৎপাদনে যে মূল বিষয়গুলো মেনে চলার কথা বলা হয়েছে এর মধ্যে রয়েছে; ফ্যাব্রিক মাস্কগুলোর বায়ুশোধন সক্ষমতা, নিরবিচ্ছিন্ন শ্বাস-প্রশ্বাস এবং তাতে কী কী উপাদান ব্যবহার করা হচ্ছে ইত্যাদি।

ঢাকায় জাতিসংঘের আবাসিক সমন্বয়কারী মিয়া সেপ্পো বলেন, ‘নতুন করে তৈরি এসব মানদণ্ডকে আমরা স্বাগত জানাচ্ছি; যা জাতীয় উৎপাদক এবং এনজিওদের জন্য সাশ্রয়ী মূল্যে পুনরায় ব্যবহারযোগ্য মাস্ক প্রস্তুত সহজতর করবে। এইভাবে আমরা ডিসপোজেবল মাস্ক এড়িয়ে চলা ছাড়াও বর্জ্য সমস্যা মুক্ত থাকতে পারি।’

মাস্ক উৎপাদনে মান নিয়ে সহায়তার পাশাপাশি জাতিসংঘ ফ্যাব্রিক মাস্কের গুরুত্ব এবং সঠিক ব্যবহার সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধি ও রক্ষণাবেক্ষণের মতো অন্যান্য সুরক্ষা ব্যবস্থা ছাড়ও তথ্য প্রচারণা বাস্তবায়নের জন্য বাংলাদেশ সরকারের সাথে নিবিড়ভাবে কাজ করছে বলেও ওই সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

 

আরপি / এমবি-২



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top