রাজশাহী সোমবার, ১০ই আগস্ট ২০২০, ২৭শে শ্রাবণ ১৪২৭


গোমাংস: ভারতে পুলিশের সামনেই চালককে হাতুড়ি পেটা


প্রকাশিত:
১ আগস্ট ২০২০ ১৯:৪৩

আপডেট:
১০ আগস্ট ২০২০ ১০:৫৯

চালককে হাতুড়ি পেটা। ছবি: সংগৃহীত

ভারতে ঈদুল আজহার দিন গরুর মাংস নিয়ে যাচ্ছে সন্দেহে এক চালকের ওপর পুলিশের সামনেই হাতুড়ি নিয়ে কথিত ‘গোরক্ষক’ নামধারী উগ্রবাদী হিন্দুরা হামলা চালিয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, শনিবার সকাল ৭টার দিকে হরিয়ানার গুরুগ্রামে মাংস ভর্তি একটি পিকআপ ট্রাককে তাড়া করে ধরে এক দল দুষ্কৃতিকারী। খবর এনডিটিভির।

এ সময় তারা ট্রাকচালক লোকমানকে হাতুড়ি দিয়ে বেধড়ক পিটাতে থাকে। ঘটনাস্থলে পুলিশ থাকলেও তারা হস্তক্ষেপ করেনি দুষ্কৃতিকারীদের সন্ত্রাসী কাজে।

২০১৫ সালে উত্তরপ্রদেশের দাদরিতে গোমাংস রাখার ‘অপরাধে’ গণপিটুনিতে খুনের মতোই এ ক্ষেত্রেও ট্রাকে থাকা মাংস ফরেন্সিক পরীক্ষাগারে পাঠাতেই বেশি ব্যস্ত হয়ে পড়ে পুলিশ।

আহত লোকমানকে ওই ট্রাকে তুলেই গুরুগ্রামের বাদশাপুর গ্রামে নিয়ে গিয়ে ফের মারধর করা হয়। লোকমানকে একটি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে এফআইআর করা হয়েছে।ঘটনার ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে মুখ খুলতে রাজি হয়নি পুলিশ।

ট্রাকের মালিক জানিয়েছেন, তিনি ৫০ বছর ধরে মাংসের ব্যবসা করছেন।ওই ট্রাকে মোষের মাংস ছিল।


‘গোরক্ষক’দের একের পর এক হামলার ঘটনা নিয়ে বারবার অস্বস্তিতে পড়েছে বিজেপি। এমন ঘটনার বিরুদ্ধে মুখ খুলেছেন খোদ ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিও।

২০১৮ সালে গণপিটুনিতে খুনকে ‘ঘৃণ্য’ অ্যাখ্যা দিয়ে তা রুখতে নির্দেশিকা জারি করে সুপ্রিম কোর্ট। তাতে যে কাজ বিশেষ হয়নি তা দেখিয়ে দিল গুরুগ্রাম।

 

আরপি/আআ-১৫




আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top