রাজশাহী সোমবার, ৬ই ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৫শে মাঘ ১৪২৯


শ্বশুরকে মদ খাইয়ে শাশুড়ির হাত ধরে পালাল জামাই!


প্রকাশিত:
২ জানুয়ারী ২০২৩ ২৩:৫৫

আপডেট:
৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ২১:৪৯

প্রতীকী ছবি

ত্রিকোণ থেকে অসম বয়সি– প্রেমের এমন অনেক উপাখ্যান নিয়েই আলোচনা হয়। কিন্তু সম্প্রতি ভারতের রাজস্থানের এক প্রেম কাহিনী, সবকিছুকেই হার মানাবে। ৪০ বছর বয়সি শাশুড়ির প্রেমের পড়েন ২৭ বছর বয়সি জামাই।

দ্যা ওয়ালের খবরে বলা হয়েছে, অনেকদিন ধরে দু’জনের ঘনিষ্ঠতা বাড়তে থাকে, অবশেষে শাশুড়িকে নিয়ে চম্পট দেন জামাই!

খবরে বলা হয়েছে, রাজস্থানের সিরোহির আনাদারা থানা এলাকার নারায়ণ স্বামীর সঙ্গে মেয়ের বিয়ে দেন এক ব্যক্তি। সেই থেকে স্ত্রীকে নিয়ে শ্বশুর বাড়িতে প্রায়ই আনাগোনা ছিল নারায়ণের। কিন্তু এই আসা-যাওয়ার মাঝে যে শাশুড়ির সঙ্গে গভীর প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠেছে তা ঘুর্ণাক্ষরেও টের পাননি বাবা-মেয়ে।

গত ৩০ ডিসেম্বর শ্বশুরবাড়িতে আসেন নারায়ণ। শ্বশুরের সঙ্গে বসে জমিয়ে মদ খান। যদিও সেদিন নিজে খুব কম খেলেও শ্বশুরকে গলা পর্যন্ত মদ খাওয়ান নারায়ণ। সেই মদের নেশায় বেঁহুশ হয়ে যান শ্বশুর। বাড়ি তখন ফাঁকা। সেই সুযোগেই শাশুড়িকে নিয়ে বাড়ি ছেড়ে পালায় জামাই।

ঘণ্টা কয়েক বাদে মদের নেশা কাটার পর শ্বশুর দেখেন বাড়িতে বৌ নেই। খোঁজ খবর নিয়ে জানতে পারেন জামাইয়ের সঙ্গেই পালিয়ে গেছেন তাঁর স্ত্রী। সেই খবরের ‘শক’ এতটাই ছিল যে তা সহ্য করতে না পেরে ফের জ্ঞান হারান শ্বশুর। পরে কিছুটা ধাতস্থ হয়ে বৌ ও জামাইয়ের সন্ধানের আশায় থানায় ছোটেন তিনি।

থানায় গিয়ে দু’জনের নামেই লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছিলেন শ্বশুর। এরপরই পুরো ঘটনা সামনে আসে। শ্বশুর অভিযোগে জানান, সেদিন জামাই মেয়েকে নিয়ে আসেনি। পুলিশের প্রাথমিক অনুমান, আগে থেকেই পালানোর ছক ছিল শাশুড়ি-জামাইয়ের। অভিযোগ পাওয়ার পরেই দু’জনের খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে পুলিশ।

 

 

আরপি/এসআর-০৫


বিষয়: সম্পর্ক


আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top