রাজশাহী বুধবার, ২৮শে ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৬ই ফাল্গুন ১৪৩০


রাজশাহী কলেজ শিক্ষার্থী নিশাদ হত্যার বিচারের দাবিতে মানববন্ধন


প্রকাশিত:
৫ অক্টোবর ২০২৩ ১৭:৫৩

আপডেট:
৬ অক্টোবর ২০২৩ ১১:২২

ছবি: মানববন্ধন

রাজশাহী কলেজের পরিসংখ্যান বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী নিশাদ আকরামের হত্যার প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

বৃহস্পতিবার (৫ অক্টোবর) সকাল ১০টায় কলেজের প্রধান ফটকের সামনে তারা এই মানববন্ধন করেন। এসময় হত্যাকারীদের সর্বোচ্চ বিচারসহ শিক্ষা নগরী রাজশাহীর নিরাপত্তা বৃদ্ধির দাবি জানায় নিহতের সহপাঠী, শিক্ষক ও সাধারণ শিক্ষার্থীরা।

পরিসংখ্যান বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী ফেরদৌস রহমান জয়ের সভাপত্বিতে মানববন্ধনে একাত্মতা প্রকাশ করেন রাজশাহী কলেজ অধ্যক্ষ প্রফেসর মোহা. আব্দুল খালেক। 

আরও পড়ুন: ‘খেলা হবে’, ‘তলে তলে’ শব্দযুগল ব্যবহারের যুক্তি দিলেন কাদের

প্রফেসর মোহা. আব্দুল খালেক বলেন, আমার দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ায় রাস্তায় দাঁড়াতে বাধ্য হয়েছি। আমাদের প্রিয় মেধাবী শিক্ষার্থী পরিসংখ্যান বিভাগের তৃতীয় বর্ষের নিশাদ ছিনতাইকারীদের কবলে পড়ে গুরুত্বরভাবে আহত হয়। অবশেষে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের আরসিইউতে মৃত্যুবরণ করে। যেদিন ঘটনাটি ঘটে ছিল তার পরের দিনই আমরা রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার সাথে যোগাযোগ করেছিলাম, মামলা করা হয়েছিল। একজন আসামিও ধরা হয়েছিল, কিন্তু পরবর্তীতে আরো যে আসামি আছে, তাদেরকে পুলিশ প্রশাসন ধরতে পারে নাই।

এই শান্তির শহরে, এই পরিছন্ন শহরে, এই শিক্ষা নগরীতে, এ ধরনের কর্মকান্ড মেনে নেওয়া যায় না। আমরা অতি দ্রুততার সাথে আসামিদের যেন ধরা যায়, সেই ব্যবস্থা করবার জন্য পুলিশ প্রশাসনসহ সংশৃলিষ্ট সকলের কাছে দাবি জানাচ্ছি। সেই সাথে এই হত্যা মামলার ন্যায্য সুবিচার আশা করি। এ সময় এই হত্যার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান রাজশাহী কলেজ অধ্যক্ষ। 

কলেজ উপাধ্যক্ষ প্রফেসর মোহা. ওলিউর রহমান বলেন, নিশাতের হত্যাকারীকে দ্রুত আইনের আওতায় নিয়ে এসে সুষ্ঠু বিচারের জোর দাবি জানাচ্ছি। এ ধরনের ঘটনা যেন আর না ঘটে এজন্যও জোর দাবি জানাচ্ছি। আমার জানা মতে এই ঘটনা দু-চার দিন আগেও একই জায়গায় আবার ঘটেছে। আমরা এই ঘটনাযর পুনরাবৃত্তি আর চাই না।

আরও পড়ুন: দেশের বিভিন্ন জায়গায় ভারী বর্ষণের আভাস

নিশাদের সহপাঠীরা বলেন, নিশাদের হত্যাকারীদের আমরা সর্বোচ্চ শাস্তি, দোষীদের সর্বচ্চ শাস্তি মৃত্যুদন্ড চাই । আমার চাই না নিশাদের মত এমন অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা আর কারো না হোক। একই সাথে শিক্ষা নগরী রাজশাহীর নিরাপত্তা বৃদ্ধির দাবি জানাচ্ছি।

উল্লেখ্য, গত ১৭ সেপ্টেম্বর ভোরে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে অসুস্থ বন্ধুকে দেখে মেসে ফেরার পথে ছিনতাইকারীর কবলে পড়েন নিশাদ। ছিনতাইকারীরা তার মাথায় আঘাত করে সঙ্গে থাকা মোবাইল ও টাকা ছিনিয়ে নেয়। এতে গুরুতর আহত হন নিশাদ। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে রামেক হাসপাতালে ভর্তি করেন।পরে ১৬ দিন হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাঁর মৃত্যু হয়।

 

 

আরপি/এসআর-০৮



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top