রাজশাহী বুধবার, ২৮শে ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৬ই ফাল্গুন ১৪৩০


রাত পোহালেই ছাত্রলীগের সম্মেলন, জমজমাট আ.লীগ সভাপতির কার্যালয়


প্রকাশিত:
৬ ডিসেম্বর ২০২২ ১০:১২

আপডেট:
৬ ডিসেম্বর ২০২২ ১০:৩০

ছবি: সংগৃহীত

রাত পোহালেই আওয়ামী লীগের ভ্রাতৃপ্রতীম সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ৩০তম সম্মেলন। এই সম্মেলনকে ঘিরে আগের সন্ধ্যায়ও জমজমাট রাজধানীর ধানমন্ডিস্থ আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়। সেই সঙ্গে আশপাশের এলাকাতেও ভিড় করছেন নেতাকর্মীরা।

সোমবার (৫ ডিসেম্বর) বিকেল থেকেই কার্যালয়ের সামনের এলাকা ছাড়াও ভেতরে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের আনাগোনা বেড়ে যায়। একপর্যায়ে সন্ধ্যার পর নেতাকর্মীদের সংখ্যা বেড়ে যায় কয়েক গুন।

পরে কার্যালয়ে আসেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের ছাড়াও আওয়ামী লীগ সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক, মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া, আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও সরকারের তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ, আ ফ ম বাহাউদ্দীন নাছিম, সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজমসহ অন্যান্য নেতারা। এ সময় কেন্দ্রীয় নেতাদের সালাম দেওয়ার প্রবণতা দেখা গেছে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের মাঝে। সেই সঙ্গে নিজ নিজ নাম ও পদের বর্ণনাও তুলে ধরতে দেখা গেছে ব্যানারে।

এ দিন কার্যালয়ের সামনে ভিড় করতে দেখা গেছে ঢাকা মহানগর উত্তর ছাত্রলীগ ছাড়াও আদাবর থানা ছাত্রলীগ, বাংলা কলেজ ছাত্রলীগসহ সংগঠনটির বিভিন্ন শাখার নেতাকর্মীদের। আবার ছাত্রলীগ ছাড়াও যুব মহিলা লীগের কিছু নেত্রীদেরও দেখা গেছে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে। কারণ, আগামী ১৫ ডিসেম্বর আওয়ামী লীগের সহযোগী এই সংগঠনটির সম্মেলনের দিনক্ষণও নির্ধারিত রয়েছে। তাই কার্যালয়ের সামনে অবস্থানকালে কেন্দ্রীয় নেতাদের সঙ্গে দেখা করা ছাড়াও নিজেদের অবস্থান জানান দেওয়াই এখন তাদের লক্ষ্য।

কার্যালয় ঘুরে আরও দেখা গেছে, ছাত্রলীগের বিভিন্ন শাখার নেতাকর্মীরা কার্যালয়ের ভেতরে ও বাইরে ঘোরাফেরা করছেন। তাদের মধ্যে সম্মেলনকে ঘিরে নানা আলোচনা। এই আলোচনায় উঠে আসছে গত রাতে ঢাকা কলেজ ছাত্রলীগের আন্দোলনের বিষয়টিও। সবমিলিয়ে সবার অপেক্ষা এখন রাত পোহাবার।

আগামীকাল মঙ্গলবার (৬ ডিসেম্বর) ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সম্মেলন। এর মধ্য দিয়ে সমাপ্তি ঘটতে যাচ্ছে আলোচিত-সমালোচিত জয়-লেখক কমিটির। অনুষ্ঠিতব্য ওই সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এছাড়া আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরসহ দলের কেন্দ্রীয় শীর্ষ নেতারাও এতে উপস্থিত থাকবেন।

২০২০ সালের ৪ জানুয়ারি ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ও ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করে আসা আল নাহিয়ান খান জয় ও লেখক ভট্টাচার্য্যকে ‘ভারমুক্ত’ করার ঘোষণা দেন আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ফলে কাউন্সিল ছাড়াই নিয়মিত সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পান জয় ও লেখক। এরপর দুই বছর অতিবাহিত হলেও সব কমিটি ঘোষণা করতে পারেনি জয়-লেখকের কমিটি। জানা গেছে, ছাত্রলীগের ১০৭টি সাংগঠনিক জেলা শাখার মধ্যে মাত্র ৫৬টি কমিটি দিতে পেরেছে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ। তবে বাকি আছে অনেক কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের কমিটি।

 

 

আরপি/এসআর



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top