রাজশাহী বৃহঃস্পতিবার, ২৯শে সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৫ই আশ্বিন ১৪২৯


বিএনপির লজ্জা নেই, অতীত ভুলে যায় : বাহাউদ্দিন নাছিম


প্রকাশিত:
৩০ জুলাই ২০২২ ১৮:০৫

আপডেট:
২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ ২৩:১৭

ছবি: সংগৃহিত

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বলেছেন, বিএনপির কোনো লজ্জা নেই, তারা অতীত মুহূর্তের মধ্যেই ভুলে যায়। মিথ্যাচারই তাদের একমাত্র রাজনীতি, এটাই তাদের নীতি। তারা বিদ্যুৎ সাশ্রয় নীতিকে বিদ্যুৎ সংকট বলে প্রচার করে। যতদিন ইউক্রেন ও রাশিয়ার মধ্যে যুদ্ধ চলবে ততদিন আমাদের কমবেশি সংকটের মধ্য দিয়ে যেতে হবে।

শনিবার (৩০ জুলাই) রাজধানীর পল্লবী থানা আওয়ামী লীগ এবং এর আওতাধীন ২, ৩, ৫, ৬, ৯১ নম্বর ওয়ার্ড সমূহের সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, দেশে সংকট নেই। ইউক্রেন রাশিয়া যুদ্ধের কারণে সারা বিশ্বে অর্থনৈতিক মন্দাভাব চলছে। সারাবিশ্বের সংকটের কারণে সকলেই সাশ্রয়ী হচ্ছে। আমাদের সরকারও সাশ্রয় নীতি গ্রহণ করেছে। যাতে ভবিষ্যতে কোনো সংকট সৃষ্টি না হয়। আজ বিএনপি-জামায়াত দেশে অপপ্রচার করছে, তাদের কোরাস সংগীত গাইছে। তাদের লক্ষ্য যদি বাংলাদেশে সংকট সৃষ্টি করা যায়, যদি দেশ সংকটে পড়ে তাহলে বিএনপি জামাতিরা অনেক বেশি খুশি হত।

বাহাউদ্দিন নাছিম বলেন, আজ যাদের পায়ের তলায় মাটি নেই যারা দুর্নীতিতে চ্যাম্পিয়ন হয়ে বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড়িয়েছে, যাদের দলের প্রধান একজন সাজাপ্রাপ্ত আসামি, যাদের ভারপ্রাপ্ত প্রধান মুচলেকা দিয়ে দেশের বাইরে চলে গিয়ে অন্য দেশের নাগরিক হয়েছে, যারা রাজনীতিতে না পেরে অপরাজনীতি করে মিথ্যাচার করছে তাদের মুখপাত্র হয়েই মির্জা সাহেব, গয়েশ্বর ও রিজভীরা প্রতিদিন দেশের সংকট হয়েছে বলে মিথ্যাচার করছে। তাদের একটাই লক্ষ্য দেশে অরাজকতা সৃষ্টি করা। তারা নৈরাজ্য সৃষ্টি করে দেশে একটা সংকট তৈরির চেষ্টা করছে। বিএনপি দেশের কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করার জন্য আন্দোলনের নামে নৈরাজ্য করছে।

তিনি বলেন, আজ যারা বিদ্যুৎ নাই নাই বলে বক্তৃতা দেয়, হারিকেন নিয়ে ঘুরে তাদের আমলে ১ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন বৃদ্ধি করতে সক্ষম হয়নি। ২০ হাজার কোটি টাকা টাকা তখন লুটপাট করেছে। তাদের বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী আনারুল তালুকদার প্রকাশ্যে যা বলেছিল সেটা ভুলে যাওয়ার কথা নয়। ৯৬ সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যখন ক্ষমতায় ছিলেন তখন সাড়ে ৪ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন ক্ষমতা ছিল, কিন্তু বিএনপি জামায়াত ক্ষমতায় আসার পর সেটা সাড়ে ৩ হাজারে নেমে এসেছিল। তারা একটি বিদ্যুৎ কেন্দ্র উদ্বোধন করে আসার এক ঘণ্টার মধ্যেই সেটি বন্ধ হয়ে গিয়েছিল, এটি ছিল জাতীয় লজ্জার বিষয়। সেই দুর্নীতিবাজরা যারা বিদ্যুতের সাপ্লাই পূরণ করতে না পেরে খাম্বা দিয়েছিল, হাজার হাজার কোটি টাকা লুটপাট করেছে তারা এখন হারিকেন নিয়ে রাজনীতি করার চেষ্টা করে।

আওয়ামী লীগের এই নেতা বলেন, আমরা সাশ্রয়ী নীতির কারণে দৈনিক এক থেকে দুই ঘণ্টা পরীক্ষামূলকভাবে লোডশেডিং হচ্ছে, যাতে অদূর ভবিষ্যতে আমাদের দেশ কোনো সংকটে না পড়ে। যুক্তরাষ্ট্র থেকে শুরু করে সকল উন্নত দেশ এ ব্যবস্থা নিয়েছে। সকল কিছুর মূল ইউক্রেন-রাশিয়ার যুদ্ধ। যুদ্ধবাজদের কারণে বিশ্বের সংকট সৃষ্টি হয়েছে। এ সংকট মোকাবিলার জন্য আমরা আগে থেকেই সাশ্রয় পথে হাঁটছি।

ঢাকা ১৬ আসনের সংসদ সদস্য ও পল্লবী থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি ইলিয়াস উদ্দিন মোল্লার সভাপতিত্বে সম্মেলন উদ্বোধন করেন ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ বজলুর রহমান ও প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা মহানগর উওর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এস এম কান্নান কচি।

আরপি/ এসএইস ০১



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top