রাজশাহী শুক্রবার, ১৪ই মে ২০২১, ১লা জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮


এবার সশস্ত্র হওয়ার হুমকি কাদের মির্জার


প্রকাশিত:
২২ এপ্রিল ২০২১ ২০:২০

আপডেট:
২৩ এপ্রিল ২০২১ ২১:১২

ফাইল ছবি

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জের বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আব্দুল কাদের মির্জা দুই দিন আগে শান্তির প্রস্তাব দিয়েছিলেন। বৃহস্পতিবার তার এক অনুসারীকে গ্রেফতারের পর শান্তির প্রস্তাব থেকে সরে এসে সশস্ত্র হওয়ার হুমকি দিয়েছেন কাদের মির্জা।

বৃহস্পতিবার বিকালে বসুরহাট পৌরসভা চত্বর থেকে তার অনুসারী রাজু খানকে গ্রেফতারের পর পর ফেসবুক লাইভে এসে তিনি বলেন, ‘আমি ছেড়ে দিব না। আমার ছেলেকে এইভাবে আহত করার পর তারা বাড়িতে কীভাবে বসে বসে মিটিং করে? দিনরাত তারা সেখানে আড্ডা দেয়, প্রত্যেকটা ছেলের হাতে অস্ত্র। অস্ত্র নিয়ে তারা থানায় যায়, অস্ত্র নিয়ে ওসির সামনে বসে থাকে। এই অবস্থা এখানে চলছে। এই অবস্থা যদি চলতে দেয়, আমরা বসে থাকব না। আমরাও সশস্ত্র হব।’

কাদের মির্জা বলেন, আমি আমার কর্মীদেরকে বলবো, আমি শান্তির প্রস্তাব দিয়েছি। আমি আরও একদিন দেখবো, আজকের দিন দেখার পর তোমাদেরকে আগামী দিন (শুক্রবার) সিদ্ধান্ত দেব, সে সিদ্ধান্তের আলোকে রাজপথে আমিও থাকবো, আমি দেখবো পুলিশ প্রশাসন কি জিনিস, প্রয়োজনে জেলে যাব, জীবন উৎসর্গ করবো, আমি আর ছেড়ে দেব না।

কাদের মির্জা আরও বলেন, আমি গত পরশু সেহেরির সময় কোম্পানীগঞ্জে শান্তির জন্য ১১ দফায় একটি প্রস্তাব দিয়েছিলাম। করোনা থেকে কোম্পানীগঞ্জের মানুষকে রক্ষা করার জন্য একটি পদক্ষেপ আমি নিয়েছি, সেটিও আপনারা শুনেছেন। কিন্তু আজকে আমার সে প্রস্তাবে এখানকার প্রশাসন, এমপি একরাম-নিজামের লেলিয়ে দেয়া অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীরা আমার প্রস্তাবে সাড়া না দিয়ে এখানে তাণ্ডব চালিয়ে যাচ্ছে। পুলিশ বাড়িতে-বাড়িতে গিয়ে আমার ছেলেদেরকে গ্রেফতার করছে।

তিনি বলেন, আমার এখানে (বসুরহাট পৌরসভায়) কেউ উঠতে নামতে পারে না। এখানে অবরুদ্ধ করে রেখেছে, ইফতার পর্যন্ত করতে পারে না, সেহেরি খেতে পারে না। একদিন সেহেরি ও ইফতার না খেয়ে রোজা রেখেছে এবং রোজা ভেঙেছে। এখানে এ পরিস্থিতিতে আমাকে রেখেছে। এ অবস্থায় কিছুক্ষণ আগে রাজু নামে আমার একটি ছেলেকে পুলিশ পৌরসভার ক্যাম্পাস থেকে গ্রেপ্তার করে নিয়ে গেছে।

মেয়র কাদের মির্জা বলেন, তাদের কত বড় সাহস-পৌরসভা জেলা নিয়ন্ত্রণ করে না, এটা স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় নিয়ন্ত্রণ করে। আমার পৌরসভা থেকে আমার ছেলেকে (অনুসারী রাজু) নিয়ে তাকে পুলিশ অমানুষিক নির্যাতন করেছে। গত তিনদিনে আমাদের প্রায় ১০ জনকে গ্রেফতার করেছে। আমাদের সিরাজপুরের সাধারণ সম্পাদক মিকনকে গ্রেফতার করেছে। আমি দেখার জন্য থানায় গেলে শামীম (এডিশনাল এসপি) এবং ওসি আমার গায়ের ওপর হাত দিয়েছে। আমি প্রশাসনের উচ্চ পর্যায়ে বলেও কোনো প্রতিকার পাইনি।

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলায় বসুরহাট পৌরসভার মেয়র কাদের মির্জার অনুসারী মাঈন উদ্দিন প্রকাশ রাজু খানকে (২৯) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার বিকালে পৌরসভা ভবন এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয় বলে পুলিশ সূত্রে জানা যায়। রাজু খান বসুরহাট পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ডের সাহাব উদ্দিনের ছেলে। তিনি মেয়র কাদের মির্জা ঘোষিত বসুরহাট পৌরসভা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ-প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক।

আরপি / আইএইচ-৩



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top