রাজশাহী মঙ্গলবার, ২৪শে নভেম্বর ২০২০, ১১ই অগ্রহায়ণ ১৪২৭


ধর্ষণ বন্ধে রাজশাহী কলেজ শিক্ষার্থীর ব্যতিক্রমী প্রতিবাদ


প্রকাশিত:
১৯ অক্টোবর ২০২০ ২৩:৪৩

আপডেট:
১৯ অক্টোবর ২০২০ ২৩:৪৮

ছবি: সংগৃহীত

নারী নিপীড়ন ও ধর্ষণ বন্ধ এবং ধর্ষকের শাস্তির দাবিতে সাইকেল চালিয়ে প্রতিবাদ জানিয়েছেন কলেজের এই শিক্ষার্থী। প্রতিবাদকারী শিক্ষার্থীর নাম রেজওয়ান কবির সানি (২০)। তিনি কলেজের বাংলা বিভাগের ১ম বর্ষের শিক্ষার্থী।

গত ১১ থেকে ১৬ অক্টোবর পর্যন্ত তিনি ৬ শ কিলোমিটারের অধিক সাইকেল চালিয়ে এই প্রতিবাদ জানান। গত ছয় দিনে রাজশাহী, নাটোর, বগুড়া, শেরপুর, নওগাঁ, জয়পুরহাটসহ বিভিন্ন এলাকায় সাইকেল চালান তিনি। এসময় ধর্ষণের বিরুদ্ধে ও শাস্তির দাবিতে প্ল্যাকার্ড বহন করে এসব এলাকার মানুষদের মৌখিকভাবে বোঝানোসহ তাদের মাঝে সচেতনতা সৃষ্টিও প্রতিবাদের মানসিকতা তৈরির চেষ্টা করেন।

তিনি জানান, রংপুরের কাউনিয়া উপজেলার ভুতছাড়া গ্রামে তার বাসা। তার বাবার নাম আব্দুর রাজ্জাক। নারী নিপীড়ন, ধর্ষণ বন্ধে এবং ধর্ষকের শাস্তির দাবিতে ১ম দিন ১১ অক্টোবর রাজশাহী-নাটোর-বগুড়া রুটে ১১৭ কি. মি., পরের দিন ১২ অক্টোবর বগুড়া-শেরপুর-মহাস্থানগড় রুটে ১০৯ কি.মি., ৩য় দিন ১৩ অক্টোবর বগুড়া-নওগাঁ-মান্দা রুটে ১০৬ কি.মি., ৪র্থ দিন ১৮ অক্টোবর মান্দা-নওগাঁ-জয়পুরহাট রুটে ১১৪ কি.মি., ৫ম দিন ১৫ অক্টোবর জয়পুরহাট-নওগাঁ রুটে ৭৯ কি.মি. এবং ৬ষ্ঠ দিন ১৬ অক্টোবর নওগাঁ-মান্দা-রাজশাহী রুটে ৮৬ কি.মি. সাইক্লিং করেন। এই ছয় দিনে তিনি ৬ শ কিলোমিটারের অধিক রাস্তা সাইকেল চালিয়ে এই প্রতিবাদ জানান।

তিনি আরো জানান, এই মিশনে তার সাথে সংহতি প্রকাশ করে বগুড়া সাইক্লিস্টের সাইক্লিস্ট রাফি মাহমুদ ১০৯ কি.মি., বিডি রানার্স ফয়সাল আহমেদ ২৭০ কি. মি., সাইমুন ইবনে মাসুদ ২৫ কি. মি. সাইক্লিং করেছেন। এসময় মিনহাজ গোল্ডেনসহ অনেকেই তাকে তাদের বাড়িতে থাকার ব্যবস্থা করায় তাদেরকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন ।

এই মিশনের বিষয়ে রেজওয়ান কবির সানি বলেন, এই মিশনে আমি ধর্ষণের বিরুদ্ধে ও শাস্তির দাবিতে প্ল্যাকার্ড বহন করেছি। মানুষকে মৌখিক ভাবে বোঝানোর চেষ্টা করেছি। সচেতনতা সৃষ্টি এবং প্রতিবাদ করার মানসিকতা জাগানো আমার মূল উদ্দেশ্য ছিল। কেউ যেন ধর্ষণের পথে পা না বাড়ায় এই বিষয়েও কথা বলেছি সকল শ্রেণীর মানুষের সাথে। অনেকে আমার সাথে সংহতি প্রকাশ করেছে। আর কিছু বাজে মানুষ আমাকে বিভিন্ন ভাবে তাচ্ছিল্য করারও চেষ্টা করেছে। তবুও আমি তাদের প্রতি বিনয়ের সাথে কথা বলেছি এবং বোঝানোর চেষ্টা করেছি। 

 

আরপি/এসআর




আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top