রাজশাহী সোমবার, ২২শে এপ্রিল ২০২৪, ১০ই বৈশাখ ১৪৩১


বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে টেক কার্নিভাল অনুষ্ঠিত


প্রকাশিত:
১১ মার্চ ২০২৪ ২৩:৩৪

আপডেট:
২২ এপ্রিল ২০২৪ ২২:৩১

ছবি: উদ্বোধনী অনুষ্ঠান

বৈশ্বিক মঞ্চে বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার বিজ্ঞান ও প্রকৌশল বিভাগের শিক্ষার্থীদের অসামান্য সাফল্য, বিশেষ করে নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জে তাদের অসাধারণ কৃতিত্বের স্মরণ এবং তা উদযাপনের লক্ষ্যে কম্পিউটার বিজ্ঞান ও প্রকৌশল বিভাগ দিনব্যাপি আয়োজন করে ভিইউ টেক কার্নিভাল-২০২৪।

সোমবার (১১ মার্চ) সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্লাজা চত্বরে বেলুন উড়িয়ে টেক কার্নিভালের উদ্বোধন করা হয়। 

বিভাগের কো-অর্ডিনেটর প্রফেসর ড. খাদেমুল ইসলাম মোল্যার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় ট্রাস্টের চেয়ারম্যান হাফিজুর রহমান খান। টেক কার্নিভালে বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের উপদেষ্টা প্রফেসর ড. সাইদুর রহমান খানের উপস্থিতি ভিন্ন মাত্রা যোগ করে। এছাড়া উপস্থিত ছিলেন বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য (ভারপ্রাপ্ত) প্রফেসর ড. আনন্দ কুমার সাহা, ট্রেজারার প্রফেসর ড. ফয়জার রহমান, বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের নির্বাহী পরিচালক শামীম আহসান পারভেজ, রেজিস্ট্রার সুরঞ্জিত মন্ডল এবং পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক পারমিতা জামান প্রমুখ।

শুরুতে ট্রাস্টের চেয়ারম্যান হাফিজুর রহমান খান প্লাজা চত্বরে সিএসই বিভাগের স্টলে প্রদর্শিত শিক্ষার্থীদের তৈরি প্রজেক্ট পরিদর্শন করেন। স্টলগুলোতে প্রদর্শিত হয় রোবো সকার, সফ্টওয়্যার এবং হার্ডওয়্যার প্রজেক্ট। পাশাপাশি ছিল প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতা, গেমিং প্রতিযোগিতা, প্রযুক্তি বিতর্ক এবং আইটি অলিম্পিয়াড।

বিভাগের প্রভাষক মাহফুজুর রহমান এবং তানজিম নওসিন রেজা সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক আরিফা ফেরদৌসী। এরপর নাসা স্পেস অ্যাপ চ্যালেঞ্জে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন টিম ভয়েজার্সের দলনেতা খালিদ সাকিব তাদের প্রজেক্ট ও সাফল্যের কথা তুলে ধরেন।

এসময় বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় ট্রাস্টের চেয়ারম্যান হাফিজুর রহমান খান বলেন, ‘বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের ক্যারিয়ার গঠনে কাজ করছে। একাডেমিক পড়াশোনার পাশাপাশি প্রত্যেক শিক্ষার্থীর এক্সট্রা কারিকুলাম এক্টিভিটিসে যুক্ত থাকা প্রয়োজন। নাসা স্পেস অ্যাপ চ্যালেঞ্জে বিজয়ীরা শুধু এই বিভাগ বা বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য নয় সারা দেশের জন্য গর্ব। আগামীতে নতুনরা আরো ভালো করবে ও পূর্বের রেকর্ড ভেঙে নতুন নতুন সাফল্য নিয়ে আসবে।’

উপাচার্য (ভারপ্রাপ্ত) প্রফেসর আনন্দ কুমার সাহা বলেন, ‘বিশ্বের ১৫২ দেশ থেকে ৫৮ হাজার শিক্ষার্থীদের মাঝে নাসা স্পেস অ্যাপ চ্যালেঞ্জে বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের এমন সাফল্য সত্যিই অনেক বড় প্রাপ্তির। আগামীতে এই ধারা আরো অব্যাহত থাকবে। বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় আরো সমৃদ্ধ হয়ে দেশেসহ দেশের বাহিরের সেরা বিশ্ববিদ্যালয় হয়ে উঠবে। প্রত্যেক শিক্ষার্থীকে প্রতিষ্ঠিত হওয়ার লক্ষে কাজ করতে হবে এবং সমাজের মানুষের জন্য অবদান রাখার মনসিকতা থাকতে হবে। এছাড়াও তিনি আয়োজক ও নাসা স্পেস অ্যাপ চ্যালেঞ্জে বিজয়ীদের ধন্যবাদ জানান।’

বক্তব্যপর্ব শেষে নাসা স্পেস অ্যাপ চ্যালেঞ্জে বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের গোল্ড মেডেল ও কার্নিভাল কম্পিটেশনে বিজয়ীদের পুরস্কার প্রদান করা হয় ও পুরষ্কার বিতরণ শেষে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

 

 

 

আরপি/এসআর



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top