রাজশাহী শুক্রবার, ৩০শে অক্টোবর ২০২০, ১৫ই কার্তিক ১৪২৭

সান্তাহারে খাদ্য বান্ধব কর্মসূচীর ২৬৪ বস্তা চাল জব্দ


প্রকাশিত:
১৪ অক্টোবর ২০২০ ১৯:২৯

আপডেট:
৩০ অক্টোবর ২০২০ ০৫:১৯

ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান। ছবি: প্রতিনিধি

বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলার সান্তাহার ইউনিয়নের হেলালিয়া হাটে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচীর চাল সুবিধা ভোগীদের মাঝে বিক্রি না করে গুদামে রেখে পাচার করার অপরাধে ২৬৪ বস্তা চাল জব্দ করেছে ভ্রাম্যমান আদালত। বুধবার সকালে আদমদীঘির সহকারি কমিশনার (ভূমি) মাহবুবা হক ভ্রাম্যমান আদালতের নেতৃত্ব দিয়ে ওই চাল জব্দ করেন।

ভ্রাম্যমান আদালত সূত্রে জানা গেছে, আদমদীঘি উপজেলার সান্তাহার ইউনিয়নের হেলালিয়া হাটের ডিলার বেলাল হোসেনের কাছে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচীর ৬৭০ বস্তা চাল বিক্রির জন্য বরাদ্দ দেয়া হয়। গত সোমবার এবং মঙ্গলবার চালগুলো সুবিধা ভোগীদের মধ্যে বিক্রি করার দিন নির্ধারন করা ছিল। কিন্তু ডিলার বেলাল হোসেন ২৬৪ বস্তা চাল বিক্রি না করে গোপনে গুদামজাত করে করে রেখে দেন। বুধবার ভোরে ওই গুদাম থেকে ১৫ বস্তা চাল একটি ব্যাটারী চালিত অটোচার্জার করে পাচার করার সময় স্থানীয় জনতা অটোর্চাজার আটক করে থানা পুলিশকে খবর দেয়।

আদমদীঘি থানার উপ-পরিদর্শক ফজলুর রহমান ঘটনাস্থলে গিয়ে ১৫ বস্তা চাল জব্দ করেন এবং বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী অফিসার সীমা শারমিনকে অবহিত করেন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার সীমা শারমিনের নির্দেশে উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাহবুবা হকের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমান আদালত ঘটনাস্থল হেলালিয়া হাটে গিয়ে ডিলার বেলাল হোসেনের গুদাম তল্লাশী করে খাদ্য বিভাগের সিলমোহর যুক্ত ২৩৪ বস্তা এবং ৫০ কেজি ওজনের খোলা ১৫ বস্তা চাল জব্দ করেন। ২৬৪ বস্তা চাল বর্তমানে থানা পুলিশের হেফাজতে রয়েছে।

এ ব্যাপারে সহকারি কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাহবুবা হক বলেন, এ বিষয়ে আদমদীঘি থানায় ডিলার বেলাল হোসেনের নামে নিয়মিত মামলা দায়ের হবে। মামলা দায়েরের জন্য উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক পরিতোষ কুমার কে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

আদমদীঘি থানার ওসি (তদন্ত) সানোয়ার হোসেন বলেন, মামলা দায়েরের বিষয়ে তাঁরা নির্দেশনা পেয়েছেন এবং জব্দকৃত চাল থানা পুলিশের হেফাজতে রয়েছে।

 

আরপি/আআ




আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top