রাজশাহী মঙ্গলবার, ১৬ই জুলাই ২০২৪, ২রা শ্রাবণ ১৪৩১

বান্ধবীর আপত্তিকর ভিডিও ছড়ানোয় ৬ বছরের সাজা


প্রকাশিত:
৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ১৮:৩০

আপডেট:
১৬ জুলাই ২০২৪ ১৫:৫৬

ছবি: দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি

বান্ধবীর আপত্তিকর ছবি ও ভিডিও ফেসবুকে ছড়ানোর দায়ে এক যুবককে ছয় বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন রাজশাহীর আদালত। এছাড়াও তাকে তিন লাখ টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও নয় মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দেওয়া হয়।

বুধবার (৭ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে রাজশাহী সাইবার ট্রাইব্যুনাল আদালতের বিচারক জিয়াউর রহমান এ রায় দেন। ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের পৃথক তিনটি ধারায় আসামিকে এই সাজা দেওয়া হয়।

সাজাপ্রাপ্ত আসামির নাম মিজান আলী ওরফে তুহিন (২৬)। তিনি চাঁপাইনবাগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার কৃষ্ণচন্দ্রপুর এলাকার বেলাল উদ্দীনের ছেলে। রায় ঘোষণার সময় আসামি আদালতের কাঠগড়ায় উপস্থিত ছিলেন।

রাজশাহী সাইবার ট্রাইব্যুনাল আদালতের রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী (পিপি) ইসমত আরা বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, বাদী ও বিবাদী মধ্যে রাজশাহীর নিউ ডিগ্রী কলেজে অধ্যয়নের সময় বন্ধুত্বের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। ২০২২ সালের নভেম্বরে আসামি তুহিন গোপনে ভুক্তভোগীর কিছু অন্তরঙ্গ ছবি ও ভিডিও ধারণ করে কুপ্রস্তাব দিতে থাকে। রাজি না হওয়ায় ওই তরুণীর শ্বশুরবাড়ির লোকজন ও ফেসবুকে আপত্তিকরভাবে এডিট করে ছড়িয়ে দিতে থাকে। এর প্রেক্ষিতে ২০২৩ সালের জানুয়ারিতে সাইবার আদালতে হাজির হয়ে একটি মামলা দায়ের করেন।

তিনি আরও বলেন, আসামিকে গ্রেফতারের পর চার্জশিট দাখিল করলে আদালত সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে তুহিন দোষী সাব্যস্ত হওয়ায় আদালত আজ দুপুরে মামলার রায় ঘোষণা করেন। রায়ে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ২০১৮ এর ২৫(২) ধারায় তিন বছরের সশ্রম কারাদণ্ড ও এক লাখ টাকা অর্থদণ্ড, অনাদায়ে তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ২০১৮ এর ২৬(২) ধারায় দ্ইু বছরের সশ্রম কারাদণ্ড ও এক লাখ টাকা অর্থদণ্ড, অনাদায়ে আরও তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড এবং ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ২০১৮ এর ২৯(২) ধারায় এক বছরের সশ্রম কারাদণ্ড ও ১ লাখ টাকা অর্থদণ্ড, অনাদায়ে আরও তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

 

আরপি/এসআর



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top