রাজশাহী সোমবার, ৬ই ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৫শে মাঘ ১৪২৯

বাসের পর ছোট যানবাহনও বন্ধ রাজশাহীতে


প্রকাশিত:
২ ডিসেম্বর ২০২২ ১৬:৪১

আপডেট:
২ ডিসেম্বর ২০২২ ১৬:৪২

ফাইল ছবি

সড়ক আইন সংশোধন ও অবৈধ যানবাহন চলাচল বন্ধসহ ১১ দফা দাবিতে সমগ্র রাজশাহী বিভাগে চলছে পরিবহন ধর্মঘট। গতকাল বৃহস্পতিবার (১ ডিসেম্বর) ভোর ৬টা থেকে শুরু হওয়া পরিবহন ধর্মঘট আজ (শুক্রবার) দ্বিতীয় দিনের মতো অব্যাহত রয়েছে। ধর্মঘট শুরুর পর রাজশাহী থেকে দূরপাল্লা বা আন্তঃজেলা রুটের কোনো বাস ছেড়ে যায় নি।

এরমধ্যেই ধর্মঘটে যাচ্ছে যাত্রীবাহী ছোট যানবাহনগুলোও। সিএনজি চালিত অটোরিকশা ও থ্রীহুইল এবং হিউম্যান হলার ও লেগুনা মালিক সমিতির ডাকে শুক্রবার (২ ডিসেম্বর) সকাল থেকেই শুরু হয়েছে এই ধর্মঘট। সকল সড়কে অবাদ চলাচল ও হয়রানিমুক্ত রেজিস্ট্রেশনের দাবিতে রাজশাহীতে অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘটে গেলেন তারা।

রাজশাহী সিএনজি চালিত অটোরিকশা (মিশুক) মালিক সমিতির সহ-সভাপতি আহসান হাবিব গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

আহসান হাবিব বলেন, সিএনজি চালিত অটোরিকশা, থ্রী-হুইল, হিউম্যান হলার ও লেগুনা শুধুমাত্র জেলার অভ্যন্তরীণ রুটে চলাচল করে। সকল সড়কে আমরা অবাদে চলাচল করতে পারি না, পদে পদে আমাদের বাধা দেওয়া হয়। নতুন অটোরিকশা কেনার পর রেজিস্ট্রেশন করতে গিয়েও হয়রানির শিকার হতে হয়। এ কারণে আমরা ধর্মঘটে যেতে বাধ্য হয়েছি।

তিনি আরও বলেন, দুই দফা দাবির বিষয়ে বৃহস্পতিবার (১ ডিসেম্বর) রাতে বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। সেই বৈঠকের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী শুক্রবার সকাল থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য আমাদের ধর্মঘট শুরু হয়েছে। তবে প্রশাসনের পক্ষ থেকে দাবি মানার আশ্বাস পেলে ধর্মঘট প্রত্যাহার করা হবে। আর দাবি আদায় না হলে ধর্মঘট অব্যাহত থাকবে।

তবে পরিবহন ধর্মঘট কিংবা মামলা দিয়ে সমাবেশ বাধাগ্রস্ত সম্ভব না বলে দাবি রাজশাহীর গণসমাবেশ আয়োজকদের। জানতে চাইলে বিএনপির মহানগর বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট শফিকুল হক মিলন বলেন, যে কেউই পতন ঠেকাতে মরিয়া হয়ে ওঠে। আওয়ামী লীগেরও পতন অবশ্যসম্ভাবী, এজন্য মরিয়া হয়ে গেছে।

কিন্তু এসব ধর্মঘট দিয়ে কোনো কাজ হবে না। লোকজন যে যার মতো পায়ে হেঁটেই আসবে ইনশাআল্লাহ। আর রাজশাহীর যে সমাবেশ সেটি বিগত সবক’টি সমাবেশের থেকে বড়। ব্যাপক লোক সমাগম হবে। যে কোনোভাবেই হোক সমাবেশ সফল হবেই বলে দাবি এই বিএনপি নেতার।

এরআগে, সড়ক পরিবহন আইন-২০১৮ সংশোধান করাসহ হাইকোর্টের নির্দেশনা অনুযায়ী মহাসড়ক ও আঞ্চলিক সড়কে থ্রিহুইলার, সিএনজি ও ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা চলাচল বন্ধ ও জ্বালানি তেলসহ যন্ত্রাংশের মূল্য হ্রাস করাসহ ১১ দফা বাস্তবায়নে সরকারের কাছে দাবি জানায় রাজশাহী বিভাগীয় পরিবহন মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদ। ৩০ নভেম্বরের মধ্যে দাবি বাস্তবায়ন করা না হলে ১ ডিসেম্বর থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য রাজশাহী বিভাগের ৮ জেলায় পরিবহন ধর্মঘটের ঘোষণা দেন তারা। এর প্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার (১ ডিসেম্বর) সকাল ৬টা থেকে ধর্মঘট শুরু হলে রাজশাহী থেকে আন্তঃজেলা ও দূরপাল্লার সকল বাস চলাচল বন্ধ হয়।

 

 

 

আরপি/এসআর-০৩



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top