রাজশাহী শুক্রবার, ৩০শে সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৫ই আশ্বিন ১৪২৯

পরিচয়পত্র সংশোধনে রাজশাহী এখন রোল মডেল


প্রকাশিত:
১০ আগস্ট ২০২২ ২০:১০

আপডেট:
১০ আগস্ট ২০২২ ২০:১১

ফাইল ছবি

জাতীয় পরিচয়পত্রের ভুল সংশোধনের কার্যক্রমে বিশেষ উদ্যোগ নিয়েছে রাজশাহী আঞ্চলিক নির্বাচন কার্যালয়। এতে সাধারণ সেবা গ্রহীতাদের ভোগান্তি আর থাকছেনা। এই বিশেষ উদ্যোগ আগামী দিনে নির্বাচন কমিশনে নতুন মাইল ফলক স্থাপন করবে। এছাড়া রাজশাহী এখন সারা দেশে রোল মডেল হয়ে উঠেছে বলে মন্তব্য করেছেন, রাজশাহী আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা মো. সাইফুল ইসলাম।

তিনি বলেন, জাতীয় পরিচয়পত্রের ভুল সংশোধন করতে আঞ্চলিক নির্বাচন অফিস সেবা গ্রহীতাদের এই ভোগান্তি দূর করতে নিয়েছে বিশেষ উদ্যোগ। এতে দিনের পর দিন নির্বাচন অফিসে আর ধর্না দিতে আর হচ্ছে না। বিশেষ এই উদ্যোগে সুফলও মিলেছে। বিভাগের সকল জেলা, উপজেলা ও থানা নির্বাচন অফিসারদের উদ্যোগ নিয়ে এসেছে সফলতা।

আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা বলেন, গত জুলাই মাসের শেষ ১৫ দিনে রাজশাহী বিভাগের আট জেলায় জাতীয় পরিচয়পত্র সংশোধনের জন্য আঞ্চলিক নির্বাচন অফিসে আবেদন জমা পড়েছিল ৫ হাজার ৯০৯টি। তবে খুবই অল্প সময়ের মধ্যে আগের জমে থাকা আবেদনসহ মোট ৮ হাজার ৮১৭টি আবেদন দ্রুত নিষ্পত্তি করেছে। এতে সহায়তা করেছেন আঞ্চলিক ও বিভিন্ন জেলা-উপজেলা নির্বাচন অফিসের কর্মকর্তারা।

তিনি আও বলেন, গত ১৬ জুলাই পর্যন্ত আট জেলায় সংশোধনের আবেদন জমা পড়েছিল ১ লাখ ৯৩ হাজার ৯৭৪টি । এর মধ্যে ১ লাখ ৫৩ হাজার ১৩৯টি সংশোধনীর আবেদন নিষ্পত্তি করা হয়েছে।আর ৪০ হাজার ৮৩৫টি আবেদনের যাচাই-বাছাই চলছে। দ্রুততম সময়ের মধ্যেই এগুলোর কাজও শেষ হবে বলে তিনি আশা ব্যক্ত করেন।

সাইফুল ইসলাম বলেন, জনগণের ভোগান্তি দূর করার জন্য একজন জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও তিনজন উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তাকে আনুষ্ঠানিকভাবে পুরস্কৃতও করা হয়েছে। গত ৬ আগস্ট আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তার সম্মেলন কক্ষে তাদের পুরস্কৃত করা হয়।

পুরস্কারপ্রাপ্তদের মধ্যে সিরাজগঞ্জ জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোহাম্মদ শহিদুল ইসলাম ১৫ দিনে ৪২৪টি জাতীয় পরিচয়পত্র সংশোধনীর নিষ্পত্তি করায় জেলা নির্বাচন কর্মকর্তাদের মধ্যে প্রথম স্থান অর্জন করেন। আর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তাদের মধ্যে ১৫ দিনে ৩৮৬টি আবেদন নিষ্পত্তি করে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোঃ রোকাব আলী দেওয়ান প্রথম স্থান অর্জন করেন।

ওই পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে রাজশাহী অতিরিক্ত আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা ছাড়াও আট জেলার জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও বিভাগের সকল উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

তথ্যসূত্র: বাংলানিউজ

আরপি/এমএএইচ



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top