রাজশাহী বৃহঃস্পতিবার, ৯ই ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৭শে মাঘ ১৪২৯

বাঘায় জামায়াতের মিছিলে পুলিশের ধাওয়া, গ্রেফতার ৭


প্রকাশিত:
২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২২ ২৩:৩১

আপডেট:
৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ০১:৪৯

ছবি: সংগৃহীত

সরকার কর্তৃক মদের লাইসেন্স বাতিলের দাবিতে রাজশাহী বাঘায় ঝটিকা মিছিল করেছে জামায়াতে ইসলামী। বুধবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) বিকাল ৪ টায় উপজেলার মাজার এলাকায় ঝটিকা মিছিলটি বের হয়।

খবর পেয়ে বাঘা থানা পুলিশ মিছিলকারীদের বাধা দিলে পুলিশকে লক্ষ করে ককটেল ও ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করে তারা। এসময় পুলিশের ৫ সদস্য আহত হন। এ ঘটনায় জামায়াত-শিবিরকে প্রতিহত করার ঘোষণা দিয়ে বিক্ষোভ, মিছিল ও পথসভা করেছে বাঘা উপজেলা আওয়ামী লীগ।

পরে আশপাশে অভিযান চালিয়ে ৭ জামায়াত সমর্থককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতারকৃতরা হলেন- উপজেলার আড়পাড়া গ্রামের জালাল মিয়ার ছেলে রাজিব হোসেন (৩০), হাবাসপুর গ্রামের নাজিম উদ্দিনের ছেলে শফিকুল ইসলাম (২৫), খায়েরহাট গ্রামের মজিবুর রহমানের ছেলে হাফিজুর রহমান (৪১), ঢাকাচন্দ্রগাথী গামের মৃত আবেদ আলীর ছেলে সেকেন্দার আলী (৬০), জোতরাঘব গ্রামের রফিজ উদ্দিনের ছেলে খোসবুর রহমান (৩৮), জোতনশী গ্রামের মৃত মোহাম্মদ আলীর ছেলে আব্দুল মান্নাফ (৩০) ও চন্ডিপুর গ্রামের মাজদার রহমানের ছেলে নাসির উদ্দিন (৪৮)।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বাঘা উপজেলা পৌর জামায়াত ইসলামীর আমির প্রভাষক সাইফুল ইসলামের নেতৃত্বে সরকার কর্তৃক মদের লাইসেন্স বাতিলের দাবিতে বুধবার বিকেলে বাঘা পৌরসভা মোড় এলাকা থেকে একটি মিছিল বের হয়। মিছিলটি স্থানীয় মাজার এলাকায় গিয়ে শেষ হয়। খবর পেয়ে বাঘা থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে আসলে পুলিশকে লক্ষ করে মিছিলকারীরা ককটেল ও ইট-পাটকেল ছুঁড়তে থাকে।

এসময় বাঘা থানা পুলিশের সহকারি উপ-পরিদর্শক (এএসআই ) আবদুর রহিম, মন্টু মিয়া, কন্সটেবল আহাদ আলী, হারুনুর রশিদ ও প্রদীপ কুমার আহত হন। আহত অবস্থায় তাদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনায় ৭ জনকে গ্রেফতার করা হয়।

এ বিষয়ে বাঘা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সাজ্জাদ হোসেন বলেন, বুধবার বিকেলের দিকে জামায়াত ইসলামী নাশকতা করতে মাজার এলাকায় জমায়েত হয়ে একটি ঝটিকা মিছিল বের করে। এ সময় পুলিশ তাদের প্রতিহত করার চেষ্টা করলে তারা ককটেল ও ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করে। এতে আমাদের ৭ পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন।

আহতরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন। গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে বৃহস্পতিবার আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হবে বলেও জানান তিনি।

বাঘা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম বাবুল বলেন, জামায়াতের ঝটিকা মিছিলের খবর পেয়ে আমরা উপজেলা আ. লীগের নেতা-কর্মীরা তাৎক্ষনিক ঘটনাস্থলে যাই। সেখানে তাদের প্রতিহত করার ঘোষণা দিয়ে একটি বিক্ষোভ মিছিলও করা হয়েছে।

 

 

আরপি/এসআর-১৪



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top