রাজশাহী বুধবার, ২৮শে ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৭ই ফাল্গুন ১৪৩০

রাজশাহীতে ভ্যাকসিন শেষ, বন্ধ গণটিকা কার্যক্রম


প্রকাশিত:
৯ আগস্ট ২০২১ ১৫:৩৭

আপডেট:
৯ আগস্ট ২০২১ ২৩:০২

রাজশাহী নগরীতে দুই দিনেই শেষ হয়ে গেছে করোনার টিকা। ফলে বন্ধ করা হয়েছে ওয়ার্ড পর্যায়ে গণটিকা প্রদান কার্যক্রম। রবিবার (৮ আগস্ট) রাতে এমনটা জানিয়েছে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন (রাসিক) কর্তৃপক্ষ। তবে সরকার নির্ধারিত শুধুমাত্র ৪টি কেন্দ্রে সোমবার (৯ আগস্ট) সকাল ৯টা থেকে চলছে টিকা প্রদান। এটি চলমান থাকবে।

রাসিক সূত্রে জানা গেছে, গণটিকা কার্যক্রমের দুইদিনে ৭৮ হাজার ৮৭৩ জনকে টিকা প্রদান করা হয়। এরমধ্যে প্রথমদিন শনিবার (৭ আগস্ট) ৩৪ হাজার ৩৮৫ জনকে এবং দ্বিতীয় দিন রবিবার (৮ আগস্ট) ৪৪ হাজার ৪৮৮ জনকে প্রদান করা হয়েছে করোনা টিকা। প্রথমদিনে নগরীর ৩০টি ওয়ার্ডে ৮৪টি কেন্দ্রে ২৭ হাজার ২৫৬ জনকে প্রথম ডোজ মর্ডানার টিকা দেয়া হয়। এছাড়া ৫২৯ জনকে সিনোফার্ম ও ১৪২০ জনকে প্রদান করা হয় কোভিশিল্ড টিকা। আর দ্বিতীয় দিন প্রথম ডোজ মর্ডানার টিকা পেয়েছেন ৩৬ হাজার ৬৬৪ জন। এদের মধ্যে ১৮ হাজার ৪৭৩ জন পুরুষ এবং ১৮ হাজার ১৯১ জন নারী। এদিন মর্ডানা টিকার বাইরে ১৭৪ জনকে সিনোফার্ম এবং ১৬৯০ জনকে প্রদান করা হয়েছে কোভিশিল্ড টিকা। প্রতিটি কেন্দ্রে টিকাদানে নিয়োজিত ছিলেন দুইজন স্বাস্থ্যকর্মী ও তিনজন স্বেচ্ছাসেবী।

ওয়ার্ডে গণটিকা কার্যক্রম বন্ধ হলেও সোমবার সকাল ৯টা থেকে নগরীর চার কেন্দ্রে টিকা দেয়া হচ্ছে। কেন্দ্রগুলো হলো- রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল (টিচার্স ট্রেনিং কলেজ), পুলিশ হাসপাতাল, আইডি হাসপাতাল ও সম্মিলিত সামরিক হাসপাতাল (সিএমএএইচ)। যারা টিকা গ্রহণে মোবাইলে এসএমএস পেয়েছেন, শুধুমাত্র তাদের প্রদান করা হচ্ছে টিকা। নিবন্ধনের ক্রমানুসারে এসএমএসে টিকা গ্রহণের বিষয়ে পূর্বেই জানিয়ে দেয়া হয়।

এ বিষয়ে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. এফএমএ আঞ্জুমান আরা বলেন, টিকা না থাকায় আপাতত স্থগিত করা হয়েছে ওয়ার্ড পর্যায়ে টিকাদান ক্যাম্পেইন। তবে সোমবার থেকে শুধুমাত্র সরকার নির্ধারিত চারটি কেন্দ্রে এসএমএস প্রাপ্তদের টিকা প্রদান করা হচ্ছে। টিকাপ্রাপ্তি সাপেক্ষে আবারো ওয়ার্ড পর্যায়ে টিকাদান কার্যক্রম চালু করা হবে।

 

আরপি/আআ



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top