রাজশাহী শুক্রবার, ২রা ডিসেম্বর ২০২২, ১৯শে অগ্রহায়ণ ১৪২৯


‘আপনার ছেলে-মেয়েটির প্রতি খেয়াল রাখুন’


প্রকাশিত:
১৩ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১৮:০১

আপডেট:
২ ডিসেম্বর ২০২২ ১১:৪৯

ছবি: সমাবেশ

সন্তানদের মাদকের ভয়াল ছোবল থেকে রক্ষা করতে অভিভাবকদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা আসাদুজ্জামান খান কামাল এমপি। তিনি বলেন, আপনার ছেলে-মেয়েটির প্রতি খেয়াল রাখুন। আসুন ওয়াদা করি, আমরা মাদক স্পর্শও করবো না। যারা মাদক সরবরাহ করে, ব্যবসা করে তাদের চিহ্নিত করে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর হাতে ধরে দিতেও আহ্বান জানান মন্ত্রী।

মঙ্গলবার (১৩ সেপ্টেম্বর) দুপুরে রাজশাহীতে এক সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন। রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশ (আরএমপি) নগরীর পুলিশ লাইন্সে মাদক ও সন্ত্রাস বিরোধী এ সমাবেশের আয়োজন করে।

আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, আমরা মাদক উৎপাদন করি না তবুও এর ভয়াল ছোবল থেকে রক্ষা পাচ্ছি না। মাদক এমনই এক ভয়ংকর নেশায় পরিণত হয়েছে, মাদক এমনই একটা লাভজনক ব্যবসায় পরিণত হয়েছে, আমরা কঠোর থেকে কঠোরতম হওয়ার প্রচেষ্টা নিচ্ছি। আইন সংশোধন করে সর্বোচ্চ শাস্তির ব্যবস্থা করেছি।

মন্ত্রী বলেন, পুলিশ জনগণের বন্ধু হয়েছে বলেই কোভিড-১৯ নিয়ন্ত্রণসহ যেকোনো চ্যালেঞ্জে পুলিশ জনগণের পাশে দাঁড়াচ্ছে। পুলিশের মানুষের সঙ্গে মিশিয়ে যাওয়া পুলিশের সক্ষমতা আরও বাড়াচ্ছে। তারা জনগণের সঙ্গে কাজ করার সুযোগ পাচ্ছে। সেজন্যই পুলিশ সব দিকেই সফলতা অর্জন করছে।

করোনা মোকাবেলার প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলেন, করোনা মহামারির সময় মা-বাবার লাশ ছেলেরা হাসপাতালে ফেলে চলে গেছে, তখন পুলিশ সেই লাশ দাফনের ব্যবস্থা করেছে। করোনায় যথেষ্টসংখ্যক পুলিশ আত্মত্যাগ করেছে। চিকিৎসকদের মতো পুলিশ সদস্যরাও আত্মত্যাগ করেছে।

রাজশাহীর সৌন্দর্য বর্ণনা করতে গিয়ে তিনি বলেন, আমি অন্য মেয়র সাহেবদের বলি, ‘রাজশাহী বেড়িয়ে আসেন। কী সুন্দর রাজশাহীর পরিবেশ! কত মনোমুগ্ধকর সবকিছু। রাজশাহীর সমস্ত কিছু এত পরিপাটি, এত সুন্দর।’

মন্ত্রী বলেন, ‘রাজশাহীতে যতবারই আসি মুগ্ধ হই। রাজশাহী আসলে একটা শান্তির পরিবেশের কথা মনে হয়। মনে হয় একটা ভালোবাসার জায়গায় আসছি। রাজশাহী শহর কখনও দেশের টানে সঠিক ভূমিকা নিতে পিছপা হয় না।’

আমরা ডিজিটাল বাংলাদেশের দ্বারপ্রান্তে এসেছি উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, আমরা সবটুকু না পারলেও প্রায় বেশির ভাগ ডিজিটালাইজেশন হয়ে গেছে। যার সুফল যেকোনো প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকেও পাওয়া যাচ্ছে। প্রত্যন্ত অঞ্চলের কৃষকরাও আজ ইন্টারনেটে খোঁজ করছে কখন তাদের ফসল উঠবে? কেউ অসুস্থ হলে তাদের কী চিকিৎসা নিতে হবে? বাড়ি বসে থেকে তারা এই তথ্য জানতে পারছে। এটিই প্রধানমন্ত্রীর স্বপ্নের বাংলাদেশ। প্রধানমন্ত্রী তার দক্ষ নেতৃত্বে বাংলাদেশের চেহারাটাই পালটে দিয়েছেন। ২০০৮ সালে তিনি বলেছিলেন পাল্টে দেবেন বাংলাদেশ, আজকে তিনি যথার্থভাবেই পাল্টে দিয়েছেন বাংলাদেশ।

আরএমপি কমিশনার আবু কালাম সিদ্দিকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে শহীদ পুলিশ সদস্যদের স্বজনরা স্মৃতিচারণমূলক বক্তব্য দেন।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও রাসিক মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব (জননিরাপত্তা বিভাগ) আখতার হোসেন, রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনার জিএসএম জাফরউল্লাহ, রাজশাহী রেঞ্জের ডিআইজি আব্দুল বাতেন, রাজশাহীর জেলা প্রশাসক আব্দুল জলিল, পুলিশ সুপার এবিএম মাসুদ হোসেন।

এদিন সকালে রাজশাহী পুলিশ লাইন্সে পুলিশ মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতি জাদুঘরের উদ্বোধন করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। পরে মাদক ও সন্ত্রাসবিরোধী সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন।

এসময় ‘মুক্তিযুদ্ধে রাজশাহী পুলিশ’ বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করেন। পরে শহীদ পুলিশ ও বীর মুক্তিযোদ্ধা পুলিশ পরিবারের সদস্যদের সম্মাননা দেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

 

 

আরপি/এসআর-০২



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top