রাজশাহী শুক্রবার, ১৪ই জুন ২০২৪, ১লা আষাঢ় ১৪৩১


ব্রয়লার মুরগির দাম নির্ধারণ, সংকট উত্তরণের আশা


প্রকাশিত:
২৪ মার্চ ২০২৩ ০০:৪৭

আপডেট:
১৪ জুন ২০২৪ ১৯:৩৯

ফাইল ছবি

ব্রয়লার মুরগির নতুন দাম নির্ধারণ করেছে উৎপাদনকারী ফার্মগুলো। এ ক্ষেত্রে বাজারে ব্রয়লারের দাম কমে আসবে বলে আশা করছে জাতীয় ভোক্তা অ‌ধিকার সংরক্ষণ অ‌ধিদফতরের মহাপরিচালক।

বৃহস্প‌তিবার (২৩ মার্চ) রাজধানীর কারওয়ান বাজারে জাতীয় ভোক্তা অ‌ধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের প্রধান কার্যালয়ে ব্রয়লার মুরগির অযৌক্তিক মূল্য বৃদ্ধির কারণ ব্যাখ্যা সংক্রান্ত শুনানি শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে একথা জানায় কাজী ফার্ম কর্তৃপক্ষ।

জাতীয় ভোক্তা অ‌ধিকার সংরক্ষণ অ‌ধিদফতরের মহাপরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) এ এইচ এম সফিকুজ্জামান বলেন, ব্রয়লার মুরগি গতকাল আমরা নিউ মার্কেটে দেখেছি। সে দাম অযৌক্তিক। গতকাল আমরা ২৭০ টাকায় বিক্রি হতে দেখেছি, কোথাও কোথাও ২৮০ টাকা। কিন্তু এটা ২০০ টাকার বেশি হতে পারে না। ফার্ম পর্যায়ে ২২০-২৩০ টাকা দরে ব্রয়লারের কেজি বিক্রি হচ্ছে। হাত বদল হয়ে ভোক্তা পর্যায়ে এই অবস্থা। ব্রয়লার মুরগি এসএমএস এর মাধ্যমে নিলাম হচ্ছে।

তিনি বলেন, আমি তাদের আহ্বান করেছি, আপনারা এই রমজান মাসে একটু কম লাভ করেন। তারা এক মত হয়েছেন। ফার্ম থেকে ব্রয়লার আসছে ২২০ থেকে ২৩০ টাকা রেটে। সে ক্ষেত্রে তো খোলা বাজারে ২৫০ টাকা হবেই।

এ সময় কাজী ফার্ম কর্তৃপক্ষ জানান, তারা রমজানে ২২০ টাকা থেকে কমিয়ে ব্রয়লার বিক্রি করবেন ১৯০ থেকে ১৯৫ টাকায়। এ বিষয়ে একমত পোষণ করছেন আফতাব, প্যারাগন ও সিপি কোম্পানি।

এ ক্ষেত্রে বাজারে কেজিতে ৩০ থেকে ৪০ টাকা পর্যন্ত ব্রয়লারের দাম কমতে পারে বলে আশা প্রকাশ করেছেন জাতীয় ভোক্তা অ‌ধিকার সংরক্ষণ অ‌ধিদফতরের মহাপরিচালক। খামার থেকে আসা ব্রয়লার মুরগি হাত বদলে যেন দাম খুব বেশি না বাড়ে সে বিষয়ে সংস্থাটি নজর রাখবে বলে জানান তিনি।

এএইচএম সফিকুজ্জামান জানান, ব্রয়লারের দাম কমাতে প্রয়োজনে বর্ডার উন্মুক্ত করে দেওয়া হবে।

এর আগে, জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতর কর্তৃক গত ৯ মার্চ পোল্ট্রি মুরগি উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান ও ব্যবসায়ীবৃন্দের সঙ্গে অধিদফতরের সভাকক্ষে একটি মতবিনিময় সভা অনু‌ষ্ঠিত হয়। সভায় পোল্ট্রি (ব্রয়লার) মুরগি উৎপাদন ব্যয় কর্পোরেট পর্যায়ে ১৩০ টাকা থেকে ১৪০ টাকা ও প্রান্তিক খামারী পর্যায়ে ১৫০ থেকে ১৬০ টাকা যা খুচরা পর্যায়ে পোল্ট্রি (ব্রয়লার) মুরগির মূল্য ২০০ টাকার অধিক নয় মর্মে মুরগী উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানসমূহ অবহিত করে।

কিন্তু বুধবার (২২ মার্চ) জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতর, এফবিসিসিআই এবং বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতির যৌথ তদারকিকালে নিউ মার্কেটের বনলতা কাঁচা বাজারে খুচরা পর্যায়ে ব্রয়লার মুরগি ২৭০ টাকা কেজি দরে বিক্রয় হতে দেখা যায়। পাশাপাশি কাপ্তান বাজারে পাইকারী পর্যায়ে ২৪৫ থেকে ২৫০ টাকা দরে ব্রয়লার মুরগি বিক্রয় করা হচ্ছে মর্মে পরিলক্ষিত হয়।

এছাড়াও সিলেটে প্রতি কেজি ২২৬ টাকা, কুমিল্লায় ২২৪ টাকা, হবিগঞ্জে ২২১, নরসিংদীতে ২২০ টাকা, টাঙ্গাইলে ২১৮ টাকা, ময়মনসিংহ ও গাজীপুরে ২১৫ টাকা দরে বিক্রয় হচ্ছে মর্মে তদারকিকালে দেখা যায়।

গত ৯ মার্চ সভায় পোল্ট্রি মুরগি উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান ও ব্যবসায়ীবৃন্দ যৌক্তিক মূল্যে পোল্ট্রি (ব্রয়লার) মুরগি বিক্রয় করবেন মর্মে সর্বসম্মতিক্রমে সিদ্ধান্ত নেওয়া হলেও বাজারে তা পরিলক্ষিত হয়নি বলে জানায় ভোক্তারা। বরং আরও অধিকমূল্যে তা বিক্রি হচ্ছে যা “ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন, ২০০৯” এর ২১ (খ) ধারা অনুযায়ী ভোক্তা অধিকার বিরোধী অপরাধ।

ফলে বাজারে পোল্ট্রি (ব্রয়লার) মুরগির অযৌক্তিক মূল্য বৃদ্ধির বিষয়ে প্রয়োজনীয় তথ্যাদিসহ উপস্থিত হয়ে কাজী ফার্মস লি., প্যারাগন পোল্ট্রি এন্ড হ্যাচারি লি. ও আফতাব বহুমুখী ফার্মস লি. ও সিপি বাংলাদেশকে ব্যাখ্যা প্রদানের জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়।

 

 

আরপি/এসআর-০৩


বিষয়: ব্রয়লার


আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top