রাজশাহী মঙ্গলবার, ১৬ই জুলাই ২০২৪, ২রা শ্রাবণ ১৪৩১


আবহাওয়ার পূ্র্বাভাস

বঙ্গোপসাগর সৃষ্টি হয়েছে লঘুচাপ


প্রকাশিত:
১৮ ডিসেম্বর ২০২১ ২৩:৩৯

আপডেট:
১৬ জুলাই ২০২৪ ১৫:২৭

ফাইল ছবি

দক্ষিণ-পূর্ব বঙ্গোপসাগর এলাকায় একটি লঘুচাপ সৃষ্টি হয়েছে। একই সঙ্গে আগামী ২৪ ঘণ্টায় তাপমাত্রা অপরিবর্তিত থাকলেও, তিনদিনের মধ্যে রাতের তাপমাত্রা আরও কমবে বলে পূ্র্বাভাস দিয়েছে বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদফতর (বিএমডি)।

শনিবার সকাল ৯টা থেকে আগামী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়া পূর্বাভাসে জানানো হয়েছে, অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারাদেশের আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে। ভোরের দিকে দেশের কোথাও কোথাও হালকা কুয়াশা পড়তে পারে।

শনিবার (১৮ ডিসেম্বর) সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়া পূর্বাভাসে আবহাওয়াবিদ এ কে এম রুহুল কুদ্দুছ স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

আজ পৌষের ৩ তারিখ হলেও এখনও জেঁকে বসেনি শীত। রাজধানীতে রাতে কিছুটা শীত অনুভূত হচ্ছে। উত্তরাঞ্চলে বিচ্ছিন্নভাবে তাপমাত্রা ১০ ডিগ্রির নিচে নামলেও দেখা দেয়নি শৈত্যপ্রবাহ। চলতি সপ্তাহেই উত্তরাঞ্চলে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ দেখা দিতে পারে বলে ইতোমধ্যে জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদ।

আবহাওয়াবিদ এ কে এম রুহুল কুদ্দুছ জানান, উপ-মহাদেশীয় উচ্চচাপ বলয়ের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন এলাকা পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। দক্ষিণ-পূর্ব বঙ্গোপসাগর এবং তৎসংলগ্ন ভারত মহাসাগর এলাকায় একটি লঘুচাপ সৃষ্টি হয়েছে।

এ সময়ে সারাদেশে রাতে এবং দিনের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। এছাড়া আগামী তিনদিন রাতের তাপমাত্রা কমতে পারে।

শনিবার দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৯ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছিল তেঁতুলিয়ায়। যদিও গত দুদিন ধরে দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছিল তেঁতুলিয়ায়। এ হিসেবে আজ তেঁতুলিয়ায় তাপমাত্রা কিছুটা বেড়েছে।

এছাড়া সারাদেশের মধ্যে তাপমাত্রা ১০ ডিগ্রির নিচে নেমেছে সিলেটে। শনিবার সিলেটে ৯ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করেছে আবহাওয়া বিভাগ। ঢাকায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা সকালে ছিল ১৬ দশমিক ১ ডিগ্রি সেলসিয়াস।শুক্রবার দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ২৯ দশমিক ৭ ডিগ্রি ছিল কক্সবাজারের টেকনাফে।

সন্ধ্যার পর শুরু হয় শীতের দাপট। রাত বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে কুয়াশার মাত্রাও বাড়ছে। রাতে মানুষকে লেপ-কম্বল জড়িয়ে ঘুমাতে হচ্ছে। ভোর পর্যন্ত কুয়াশাচ্ছন্ন থাকছে বিভিন্ন এলাকা। অনেকেই খড়কুটো জ্বালিয়ে শীত নিবারণের চেষ্টা করছে মানুষ।

সিনপটিক অবস্থায় বলা হয়েছে, উপ-মহাদেশীয় উচ্চচাপ বলয়ের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন এলাকা পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে।

 

আরপি/ এমএএইচ-০৩



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top