রাজশাহী বৃহঃস্পতিবার, ২৯শে ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৮ই ফাল্গুন ১৪৩০


গণপরিবহনে নৈরাজ্য!

মহাদেবপুরে অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের অভিযোগে দূরপাল্লার বাসে জরিমানা


প্রকাশিত:
১১ জুন ২০২০ ২৩:৩৫

আপডেট:
২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ১৫:৪৮

ঢাকাগামী বাসসমূহের কাউন্টারে অভিযান চালায় ভ্রাম্যমাণ আদালত

নওগাঁর মহাদেবপুরে গণপরিবহনে নৈরাজ্য কমছে না। স্বাস্থ্য বিধি উপেক্ষাসহ সরকার নির্ধারিত ভাড়ার অতিরিক্ত অর্থ আদায়ের অভিযোগ রয়েছে দূরপাল্লা রুটের বাস কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে। তবে টিকেটে টাকা লেখা হচ্ছে নির্ধারিত ভাড়া।

এছাড়াও মাস্কবিহীন যাত্রী বাড়ছে প্রতিনিয়ত। জীবানুনাশক স্প্রেসহ স্বাস্থ্য বিধি বাস্তবায়নেরও তেমন উদ্যোগ নেই সংশ্লিষ্টদের। সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় গণপরিবহনের ভাড়া ৬০ শতাংশ বাড়িয়ে দিয়েছে। কিন্তু আগের চেয়ে দ্বিগুণ ভাড়া নেওয়া হচ্ছে; এমন অভিযোগ তুলে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন সাধারণ মানুষ।

মৌ পরিবহনের যাত্রী সাদ্দাম হোসেন জানান, তিনি একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের প্রকৌশলী। অফিসের জন্য মহাদেবপুর থেকে ঢাকা যাতায়াত করতে হয় তাকে।

তিনি বলেন, ‘ঢাকা যেতে ৪০০ টাকা লাগতো। সেই ভাড়া এখন দাঁড়িয়েছে ৯০০-১০০০ টাকায়। অথচ সরকার ৬০ শতাংশ ভাড়া বৃদ্ধি করেছে। কিন্তু বাস কর্তৃপক্ষ তা মানছেন না। আদতে এ দেশে কখনোই বাস ভাড়া নিয়ন্ত্রণ করতে পারেনি সরকার।’

শুধু সাদ্দাম হোসেন নন, আরও অনেকেই বাসে সরকার নির্ধারিত ভাড়ার অতিরিক্ত গুনতে হচ্ছে বলে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলা সদরের মাছের মোড় এলাকায় ঢাকাগামী বাসসমূহে নৈরাজ্য থামছে না। কাউন্টারগুলোতে সরকার নির্ধারিত ভাড়া আদায়ের পরিবর্তে যাত্রীভেদে ৭’শ ৫০ থেকে এক হাজার টাকা পর্যন্ত ভাড়া আদায় করা হচ্ছে। বিআরটিএ-নওগাঁ কর্তৃক নির্ধারিত ভাড়ার তালিকা প্রতিটি কাউন্টারে দৃশ্যমান থাকার কথা থাকলেও তা টাঙানো হয়নি।

এ অবস্থায় যাত্রীদের অভিযোগের প্রেক্ষিতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নেতৃত্বে গত ৯ জুন মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে ঢাকাগামী বাসসমূহের কাউন্টারে অভিযান চালায় ভ্রাম্যমাণ আদালত। অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করার দায়ে ‘মৌ’ পরিবহনের দুই হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়।

এসময় অন্যান্যদের সতর্ক করে সরকার নির্ধারিত ভাড়ার তালিকা প্রতিটি কাউন্টারে দৃশ্যমান স্থানে টাঙিয়ে রাখার নির্দেশ প্রদান করেন ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট অনিক চৌধুরী। মহাদেবপুর থানার এসআই এরশাদ মিঞা, রতন কুমার, খোকন কুন্ডু প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট অনিক চৌধুরী বলেন, ‘জনস্বার্থে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান অব্যাহত থাকবে।’

এ ব্যাপারে মহাদেবপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. মিজানুর রহমান মিলন বলেন, ‘যাত্রীদের কাছ থেকে সরকার নির্ধারিত ভাড়ার চেয়ে অতিরিক্ত টাকা নেওয়ার সুযোগ নেই। কেউ অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

 

আরপি/ এএন-১



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top