রাজশাহী মঙ্গলবার, ২৫শে জুন ২০২৪, ১২ই আষাঢ় ১৪৩১


শেখ মুজিবুর রহমান বিশ্ববিদ্যালয় নওগাঁর পতিসরে স্থাপনের দাবিতে স্মারকলিপি প্রদান


প্রকাশিত:
২৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩ ১৪:২৬

আপডেট:
২৫ জুন ২০২৪ ১৫:৩২

ছবি: স্মারকলিপি প্রদান

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিশ্ববিদ্যালয় নওগাঁর ক্যাম্পাস রবি ঠাকুরের স্মৃতিবিজড়িত আন্তর্জাতিক রবীন্দ্র গবেষণা ইনস্টিটিউট পতিসরে স্থাপনের দাবিতে স্মারকলিপি দেওয়া হয়েছে।

সোমবার (২৫ সেপ্টেম্বর) বিকেলে রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনার ড. দেওয়ান মুহাম্মদ হুমায়ূন কবীরের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বরাবর এই স্মারকলিপি প্রদান করা হয়।

স্মারকলিপিতে উল্লেখ করা হয়, বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পর জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান রবি ঠাকুরের স্মৃতিবিজড়িত পতিসরে বাংলা বাজার করতে চেয়েছিলেন। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৭৪ সালে পরিকল্পনামন্ত্রী তাহের উদ্দিন ঠাকুরকে বাংলা বাজার স্থাপনের নিমিত্তে পরিদর্শনে পাঠিয়েছিলেন। রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর বাংলাদেশে অবস্থিত তিনটি কুঠি বাড়ির মধ্যে সবচেয়ে প্রত্যন্ত নীরেট-নিভৃত-অবহেলিত পতিসরকে বেছে নিয়ে সর্বসাধারণের মাঝে শিক্ষার আলো ছড়িয়ে দেওয়ার জন্য কালিগ্রাম পরগায় ৯২ টি প্রাথমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান চালু করেন। গ্রাম্য মহাজনদের কবল থেকে রক্ষা করতে তিনি নোবেল বিজয়ের প্রায় সমস্ত টাকা দিয়ে সুদমুক্ত কৃষি ব্যাংক চালু করেন।

আরও পড়ুন: বিশেষায়িত পেশার দাবি বিসিএস শিক্ষা ক্যাডারদের

আরও বলা হয়, বঙ্গবন্ধুর নামাঙ্কিত বিশ্ববিদ্যালয় পতিসরে স্থাপনকল্পে গ্রামকে শহরে রূপান্তর করণে এখানে কোন জমি অধিগ্রহণ ও অবকাঠামো নির্মাণের প্রয়োজন হবে না। এই জায়গাটি চারটি জেলার সংযোগস্থল এবং নৌপথ, রেল ও সড়ক যোগাযোগ সমৃদ্ধ। এখানে বিশ্ববিদ্যালয়টি স্থাপিত হলে যোগাযোগ ব্যবস্থার বহুমুখী সুবিধার করিণে দেশি-বিদেশি শিক্ষার্থী-গবেষক-শিল্পী-সাহিত্যিক-সাংস্কৃকিতকর্মী প্রমুখ তাদের চর্চিত জ্ঞানে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলায় সোনার মানুষ তৈরি করে সারা বিশ্বকে আলোকিত করবে।

শিল্প-সাহিত্য ও সংস্কৃতিতে সমৃদ্ধ, নৈর্সগিক সৌন্দর্যে অতুলনীয় পতিসরে ’বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিশ্ববিদ্যালয় নওগাঁ’ ক্যাম্পাস স্থাপনে চুড়ান্ত সিন্ধান্ত নিতে সুদৃষ্টি কামনা করা হয়।

স্মারকলিপি প্রদানের সময় সচেতন ও দেশপ্রেমিক নাগরিকবৃন্দের পক্ষ থেকে প্রফেসর ড. মতিউর রহমান, বীর মুক্তিযোদ্ধা বরজাহান আলী, মুস্তারী হাকিম ইভা, সাংস্কৃতিক কর্মী ওয়ালিউর রহমান বাবুসহ আত্রাই-রাণীনগরের অনেকেই উপস্থিত ছিলেন।

 

 

আরপি/এসআর-০৩



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top