রাজশাহী মঙ্গলবার, ১৫ই জুন ২০২১, ২রা আষাঢ় ১৪২৮

চাঁপাইনবাবগঞ্জে নির্মিত হচ্ছে বিশ্বমানের স্যানেটারি ল্যান্ডফিল


প্রকাশিত:
৮ জুন ২০২০ ১০:০২

আপডেট:
১৫ জুন ২০২১ ০৯:৫৪

ছবি: সংগৃহীত

চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভায় ১৫টি ওয়ার্ডের প্রতিদিনের জমানো বর্জ্য অপসারণ করার জন্য দীর্ঘদিন থেকে সুনিদিষ্ঠ কোন কোন জায়গা না থাকায় বর্জ্যগুলো ফেলা হতো পৌর এলাকার খালঘাট নদীর ধার ও নয়াগোলা এলাকায় ফলে এলকার বসবাসকারী ও রাস্তায় চলচলকারী জনগণকে ওইসব বর্জ্যরে কারণে দুগন্ধ পেতে হত, পাশাপাশি পরিবেশ দূষণ হতো। শুধু তাই নয় অপসারণের ভাল জায়গা না থাকায় অধিকাংশ ওয়ার্ডের বিভিন্ন জায়গায় পড়ে থাকত বর্জ্য। আর এসব থেকে শ্রীঘই মুক্তি পেতে যাচ্ছে পৌরবাসী।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌর এলাকার দ্বারিয়াপুর ট্রাক টার্মিনালের উত্তরদিকে নির্মিত হচ্ছে আধুনিক বিশ্বমানের ল্যান্ডফিল। তৃতীয় নগর পরিচলন অবকাঠামো উন্নতিকরণ প্রকল্প (ইউজিপ-৩) প্রকল্পের আওতায় ৭ কোটি ৫৫ লক্ষ টাকায় জমি অধিগ্রহণ করে ও ৫ কোটি ৪১ প্রায় টাকার চুক্তি মূল্যে এটি নির্মিত হচ্ছে। নির্মিত স্যানেটারি ফিল ল্যান্ডের দুটি মাধ্যম রয়েছে। একটি বর্জ্য নিস্কাশন ও অন্যটি বাসা বাড়ি বা অফিস আদালতের টয়লেটের সেপটি ট্যাংকের মল প্রাকৃতিক উপায়ে শোষণ করা হবে।

এটি নির্মিত হয়ে গেলে চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌর এলাকার প্রতিটি ওয়ার্ডের প্রতিদিনের বাসা বাড়ি ও শহরের অলিগলির জমানো বর্জ্য একটি নিদিষ্ট স্থানে ফেলে ডাম্পিং করা হবে। বর্জ্য ফেলার সাথে সাথে ৫ থেকে ৬ ফুট লেয়ার করে মাটি দেয়া হবে। পরে এটিকে কম্পোষ্ট সার হিসেবে ব্যবহার করা হবে। অন্যদিকে বাসা বাড়ি বা অফিস আদালতের টয়লেটের সেপটি ট্যাংকের মল ভর্তি হয়ে গেলে অহেতুক বাসা বাড়ির আশপাস বা ড্রেনে সংযোগ না দিয়ে পৌরসভার মাধ্যমে সেপটি ট্যাংক থেকে তুলে তা নিয়ে গিয়ে ল্যান্ডফিলে ফেলে প্রাকৃতিক উপায়ে শোষণ করা হবে।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম ও নির্বাহী প্রকৌশলী সাদিকুল ইসলাম জানান, তৃতীয় নগর পরিচলন অবকাঠামো উন্নতিকরণ প্রকল্প (ইউজিপ-৩) প্রকল্পের আওতায় ৭ কোটি ৫৫ লক্ষ টাকায় জমি অধিগ্রহণ করে ও ৫ কোটি ৪১ প্রায় টাকার চুক্তি মূল্যে এটি নির্মিত হচ্ছে। আমাদের পৌরসভা ইউজিপ-৩ প্রকল্পের প্রথম ও দ্বিতীয় ফেজে কাজের পারফমেন্স ভাল থাকায় আমরা তৃতীয় ফেজের আওতায় এ ল্যান্ডফিল নির্মাণ করছি। এটির কাজ ইতোমধ্যে প্রায় ৮০ ভাগ সম্পন্ন হয়েছে। বাকি কাজ শেষ হলে পৌরবাসির বর্জ্য অপসারণ ও সেপটি ট্যাংকির মল অপসারণের আর কোন সমস্যা থাকবেনা।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভায় এত বড় একটি প্রকল্প বাস্তবায়ন হচ্ছে যা দেশের অন্য কোন পৌরসভার মধ্যে এখনো এরকম স্যানেটারি ল্যান্ডফিল নির্মাণ হয়নি। মেয়র নজরুল ইসলাম আরো জানান, বর্তমান পরিষদ দায়িত্ব নেওয়ার পর আমরা ইউজিপ-৩ প্রকল্প ছাড়াও নিজস্ব অর্থায়নে পৌরসভার অনেক উন্নয়ন করেছি যা অতীতের সব রেকর্ড ভেঙ্গেছে। আগামীতে শ্রীঘই আমরা ইউজিপ-৪ প্রকল্পের আওতায় যেতে পারবো ইনসাআল্লাহ।

 

 

আরপি/এমএইচ-৬



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top