রাজশাহী শনিবার, ২৪শে ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১২ই ফাল্গুন ১৪৩০


সন্দেহযুক্ত কাজ না করতে বলেছেন নবীজি


প্রকাশিত:
২৮ ডিসেম্বর ২০২১ ০৬:১১

আপডেট:
২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ০২:০০

ফাইল ছবি

সংশয়পূর্ণ জিনিস মানুষের দ্বীনদারি ও সম্মানের পক্ষে হুমকি। পরহেজগারি তথা সংশয়পূর্ণ বিষয়গুলো পরিহার করা নবী (সা.)-এর চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য ও পথনির্দেশ। আল্লাহর রাসুল (সা.) সামান্য বিষয়েও অত্যন্ত সতর্ক থাকতেন। হাদিসে সংশয়পূর্ণ জিনিস পরিহারের যে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে তার ব্যাখ্যা ও স্বরূপ নানাভাবে তুলে ধরেছেন পূর্বসূরি আলেমরা।

আবু মুহাম্মাদ হাসান ইবনে আলী ইবনে আবি তালিব (রা.) থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, আমি রাসুলুল্লাহ (সা.)-এর কাছ থেকে এই বাণী ভালোভাবে স্মরণ রেখেছি যে সংশয়পূর্ণ কাজ (যা মনে দ্বিধা তৈরি করে) যা ছেড়ে দাও এবং সংশয়হীন কাজে লিপ্ত হও। কেননা নিশ্চয়ই সত্য ও শুদ্ধের ক্ষেত্রে দ্বিধার সৃষ্টি হয় না, মিথ্যা ও অশুদ্ধের ক্ষেত্রেই দ্বিধার সৃষ্টি হয়। (সুনানে তিরমিজি, হাদিস : ২৫১৮)

হাদিসবিশারদরা হাদিসটিকে বলেছেন দ্বীনের অন্যতম মূলনীতি। আল্লাহভীতিরও মূলকথা হাদিসটি, যার ওপর বিশ্বাসের ভিত্তি স্থাপিত। একই সঙ্গে সংশয়ের অন্ধকার ও বিশ্বাসের আলো অর্জনে প্রতিবন্ধক ধারণা থেকে পরিত্রাণকারী।

সংশয়পূর্ণ বিষয় পরিহারের গুরুত্ব

সংশয়পূর্ণ জিনিস মানুষের দ্বিনদারি ও সম্মানের পক্ষে হুমকি। রাসুলুল্লাহ (সা.) মনে করেন, যে ব্যক্তি সন্দেহজনক বিষয় থেকে বেঁচে থাকে, সে নিজের ধর্ম ও সম্মানকে ত্রুটিমুক্ত রাখে। (সহিহ মুসলিম, হাদিস : ৪১৭৮)

অন্য হাদিসে রাসুলুল্লাহ (সা.) বলেন, তোমাদের দ্বীনদারির উত্তম দিক হলো পরহেজগারিতা (সংশয়পূর্ণ ও নিষিদ্ধ জিনিস পরিহার করা)। (মুসতাদরাকে হাকিম, হাদিস : ৩১৭)

সংশয়পূর্ণ জিনিস পরিহারের দৃষ্টান্ত

পরহেজগারি তথা সংশয়পূর্ণ বিষয়গুলো পরিহার করা নবী (সা.)-এর চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য ও পথনির্দেশ। রাসুলুল্লাহ সামান্য বিষয়েও অত্যন্ত সতর্ক থাকতেন। আনাস (রা.) থেকে বর্ণিত, নবী (সা.) রাস্তায় একটি খেজুর পেলেন। অতঃপর বললেন, যদি আমি এটি সদকার খেজুর হওয়ার আশঙ্কা না করতাম, তাহলে অবশ্যই তা খেয়ে ফেলতাম। (সহিহ বুখারি, হাদিস : ২৪৩১)

সংশয়পূর্ণ জিনিস পরিহারের অর্থ

হাদিসে সংশয়পূর্ণ জিনিস পরিহারের যে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে তার ব্যাখ্যা ও স্বরূপ নানাভাবে তুলে ধরেছেন পূর্বসূরি আলেমরা। যেমন হাসান (রা.) বলেন, আল্লাহভীরুরা যতক্ষণ হারাম বিবেচনায় বহু হালাল (কিন্তু সংশয়পূর্ণ) বিষয়কে ছেড়ে দেবে, ততক্ষণ তাদের দ্বিনদারি ঠিক থাকবে। (জামিউল উলুম ওয়াল হিকাম : ১৯/৯)

হাসান বিন আবু সিনান (রহ.) বলেন, পরহেজগারির চেয়ে সহজতর কোনো বিষয়ই নেই, যখন কোনো বস্তু তোমাকে সন্দিহান করে তখন তা ছেড়ে দাও। (জামিউল উলুম ওয়াল হিকাম : ১/১১০)

পরহেজগারি ইসলামের মূলনীতি

আসকারি (রহ.) বলেন, বুদ্ধিমান ব্যক্তি যদি এই হাদিস নিয়ে গবেষণা করে, তবে সে এ বিষয়ে নিশ্চিত হতে পারবে যে সন্দেহজনক প্রতিটি বস্তু ছেড়ে দেওয়ার কথাই এতে বলা হয়েছে। (ফয়জুল কাদির : ১০/১৩৮)

শায়খুল ইসলাম ইবনে তাইমিয়া (রহ.) বলেন, পরহেজগারি হলো ইসলাম ধর্মের একটি মূলনীতি। (মাজমুউল ফাতাওয়া : ২৯/৩১৫)

আবদুল্লাহ ইবনে মোবারক (রহ.) বলেন, একটি হারাম টাকা পরিহার করা এক হাজার হারাম টাকা দান করা অপেক্ষা উত্তম। (আল জামাহিরু ফি মারিফাতুল জাওয়াহির : ১/২০)। আল্লাহ তাআলা সবাইকে সংশয়পূর্ণ বিষয় পরিহার করার তাওফিক দান করুন। আমিন।

 

আরপি/ এমএএইচ-১১



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top