রাজশাহী শনিবার, ২৫শে সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০ই আশ্বিন ১৪২৮


কাউনিয়া তিস্তার চর থেকে মৃত ডলফিন উদ্ধার


প্রকাশিত:
১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১ ২৩:২৮

আপডেট:
১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১ ২৩:৫৬

ছবি: উদ্ধারকৃত ডলফিন

কাউনিয়ায় তিস্তা নদীর চর থেকে মৃত্যু ডলফিন উদ্ধার করেছে জেলেরা। মঙ্গলবার সকালে জেলেরা তিস্তা নদীর গনাই চর গ্রামে মাছ ধরার জন্য গিয়ে চরে আটকে পরা ডলফিনটি দেখতে পায়। পরে মৃত্যু ডলফিনটি উদ্ধার করে নদীর তীরে নিয়ে আসলে উৎসুক জনতার ভীর জমে যায়।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার চর গনাই গ্রামের জেলে জহির উদ্দিন, ইউসুফ আলী, করিম উদ্দিন মঙ্গলবার সকালে মুঠা(ঝাকি) জাল দিয়ে তিস্তা নদীর চরে মাছ ধরার জন্য যায়। গনাই চরে গিয়ে জেলেরা মৃত্যু ডলফিনটি চরে আটকে থাকতে দেখতে পায়। পরে তারা নৌকা যোগে মৃত ডলফিনটি নিয়ে এসে গনাই সরকারি স্কুলের কাছে রাখে। এ খবর ছড়িয়ে পড়লে উৎসুক জনতার ভীর জমে যায়। উদ্ধারকৃত ডলফিনটি প্রায় দুই গজ লম্বা হবে এবং ওজনে প্রায় তিন থেকে চার মন হবে। স্থানীয়রা জানান তিস্তা নদীতে এ অঞ্চলে এই প্রথম ডলফিনের দেখা মেলে। এর আগে জীবিত বা মৃত্যু কোনটাই এলাকায় দেখা যায়নি।

উপজেলা মৎস্য বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, এটি স্ত্যনপায়ী জলজ প্রাণী। শুশুক বা ডলফিন বলে। ঠোঁট বিহীন,দুই চোয়াল চেপ্টা চামুচের মত দাঁত,দেহ লোমহীন, একটি নাসিকা গহবর, শ্বাস-প্রশ্বাস নিতে পানির উপরের বাতাস ব্যবহার করে। বঙ্গোপসাগরে এদের অবাধ বিচরণ। এরা ১.৫ সেন্টিমিটার লম্বা হয়। দেহের বর্ণ ধুসর কালো। মাছ এদের প্রধান খাদ্য। এরা সমুদ্রের জলজ প্রাণী হলেও বর্ষা মৌসুমে বড় বড় নদীতে এরা উঠে আসে।

উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মাহবুব উল আলম বলেন, মৃত্যু উদ্ধার হওয়া প্রাণীটি জলজ স্তন্যপায়ী প্রাণী ডলফিন। এরা বর্ষা মৌসুমে বড় বড় নদীতে ওঠে আসে। দূর্গন্ধ ছড়ানো ও পরিবেশ দূষণ ঠেকাতে স্থানীয় টেপামধুপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলামের উপস্থিতিতে মৃত্যু ডলফিনটি মাটিতে পুতে রাখা হয়েছে।

 

 

আরপি/এসআর-১০



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top