রাজশাহী বৃহঃস্পতিবার, ২৫শে এপ্রিল ২০২৪, ১২ই বৈশাখ ১৪৩১


দেড়শ পরিবারকে উচ্ছেদের চেষ্টা, ৯লাখ টাকা আত্মসাৎ


প্রকাশিত:
১৭ অক্টোবর ২০২২ ০২:২৮

আপডেট:
১৭ অক্টোবর ২০২২ ০২:৪৭

ফাইল ছবি

নাটোরের লালপুরে ইউপি চেয়ারম্যানসহ তার সহযোগীদের বিরুদ্ধে ভিপি লীজকৃত জমিতে ভূমিহীনসহ প্রায় দেড়শ পরিবারকে উচ্ছেদের চেষ্টাসহ ৯ লাখ টাকার গাছ কেটে বিক্রির অভিযোগ উঠেছে। এঘটনায় নাটোর জেলা প্রশাসক বরাবর লিখিত অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগীরা।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, উপজেলার নওপাড়া মৌজার ২৪ একর সরকারি জমিতে স্বীকৃত মতে ১৫০টি বসতবাড়ি, মন্দির, প্রাইমারি স্কুল, পুকুরসহ প্রায় ৪০০ গাছপালা আছে। যা প্রতি বছর সরকারি ভাবে লীজ হয়। আর জমি লীজ নিয়ে বসবাস করে আসছে পরিবারগুলো। তবে স্থানীয় প্রভাবশালী ওসমান আলী মন্ডলসহ কয়েকজন ব্যক্তি একত্রিত হয়ে ঐ সরকারি জমি নিজেদের বলে দাবি করে আসছেন। এনিয়ে আদালতে মামলা চলমান আছে।

অভিযোগে আরো বলায় হয়, গত ৯ অক্টোবর ওসমান আলী মন্ডলের নেত্বত্বে ৯ লাখ টাকার গাছ কেটে বিক্রি করে আত্মসাৎ করেছেন। সরকারিভাবে লীজকৃত এসব জমির গাছ কাটার প্রতিবাদ জানালে ভুক্তভোগীদের বিভিন্ন হুমকি ধামকি দিয়ে উচ্ছেদ করার চেষ্টা করছে। আর এতে সহযোগীতা করছেন স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান তোফাজ্জল হোসেন তোফা।

এবিষয়ে ভুক্তভোগী আবুল হোসেন, তসলিম উদ্দিন বলেন, আমরা গরীব দুঃখী অসহায় মানুষ, কোন মতে আমরা এই সরকারি জমিটা প্রতি বছর লীজ নিয়ে বসবাস করে আসছি। আমাদের যেন উচ্ছেদ না করা হয়। এই জমিটুকুই আমাদের শেষ আশ্রয়।

অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে দুড়দুড়িয়া ইউপি চেয়ারম্যান তোফাজ্জল হোসেন তোফা এই ঘটনটায় তার সংশ্লিষ্টতা নেই জানিয়ে বলেন, ওসমান ভিপি জমির জাল দলিল করে ৪০ বছর ধরে কেস চালাচ্ছে। ৪১ বছর পর সে দুইটা ডিগ্রী পেয়েছে। প্রথমবার সরকারের পক্ষে ডিগ্রী পেলেও আপিলের পর দুইবার তা সরকারের বিপক্ষে গিয়েছে।

আর ওসমান আলী মন্ডল ওই জমি তার ক্রয়কৃত দাবি করে বলেন, আমি আমার জমিতে আমি গাছ কেটেছি। এটা সরকারি জমি না।

এবিষয়ে সরকারি কমিশনার (ভূমি) দেবাশীষ বসাক বলেন, আমরা অভিযোগ পেয়ে গাছ কাটা বন্ধ করেছি। এটা ভিপি সম্পত্তি ছিল। সম্প্রতি এই জমিতে মামলা করে একজন রায় পেয়ে ভিপি সম্পত্তি অবমুক্তির জন্য ডিসি অফিসে আবেদন করেছেন। ডিসি অফিসের নির্দেশ পেলে কার্যকরী পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

আরপি/ এসএইচ ০১ 



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top