রাজশাহী শনিবার, ২২শে জুন ২০২৪, ৯ই আষাঢ় ১৪৩১


শিকারীর ফাঁদ থেকে ৩৫০ পাখি অবমুক্ত


প্রকাশিত:
৯ নভেম্বর ২০২১ ০৭:০২

আপডেট:
২২ জুন ২০২৪ ১৬:২৬

ছবি: প্রতিনিধি

নাটোরের গুরুদাসপুর ও বড়াইগ্রামে শিকারীর ফাঁদ থেকে উদ্ধার হওয়া প্রায় ৩৫০টি বক পাখি অবমুক্ত করা হয়েছে।

সোমবার ভোর ৪ টা থেকে সকাল ৯টা পর্যন্ত গুরুদাসপুর উপজেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান পরিচালনা করে পাখিগুলো অবমুক্ত করা হয়।

জানা গেছে, চাপিলা ইউনিয়নের চাকলের বিল, তেলটুপি বিল, ভত্তাগাড়ী বিল, নওপাড়া বিল ও বড়াইগ্রাম উপজেলার নিশ্চিন্তপুর বিল, জালসুকা বিল, রয়না ভরাটসহ প্রায় ১২টি মাঠে পরিবেশকর্মী নাজমুল হাসানের নেতৃত্বে মেহেদী হাসান তানিম, সাদেক হোসেন, মনির হোসেন ও আশিকুর রহমান ওই অভিযান পরিচালনা করা হয়।

এসময় ৩২টি পাখি শিকার করা ফাঁদ (কিল্লা ঘর) ধ্বংস করা হয় এবং ৩২টি শিকারী বক উদ্ধার করে অবমুক্ত করা হয়।

তাছাড়াও খাঁচাবন্দী প্রায় ৩৪০টি বুনো বক পাখি স্থানীয় এলাকাবাসীদের নিয়ে মাঠেই অবমুক্ত করা হয়। অভিযানে ৪ জন শিকারী কিশোর হওয়ায় তারা পাখি শিকার আর করবে না মর্মে স্থানীয় এলাকাবাসী মুক্ত করে নেয় এবং বাকি শিকারীদের ধরা সম্ভব হয়নি।

পরিবেশকর্মী নাজমুল হাসান বলেন, জীববৈচিত্র রক্ষায় পাখি শিকার বন্ধে চলনবিল অধ্যুষিত প্রায় সকল এলাকায় প্রতিদিন অভিযান চালানো হচ্ছে। ভোর ৪টা থেকে সকাল ৯টা পর্যন্ত তারা ৫ জন পরিবেশকর্মী এই অভিযান পরিচালনা করেন।

সেচ্ছাশ্রমে পরিবেশ রক্ষায় তারা সকল সময় প্রস্তুত রয়েছেন। তাছাড়াও প্রতিটি এলাকায় স্থানীয় এলাকাবাসীদের সচেতন করতে বিভিন্ন প্রচার-প্রচারণাও করে থাকেন।

তবে কাক ডাকা ভোরে শীতের সকালে বাইক যোগে যেতে অনেক কষ্ট হলেও পরিবেশ রক্ষায় তারা এই কষ্ট মেনে নিয়েই অভিযান পরিচালনা করেন।

 

আরপি/ এমএএইচ-১৩



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top