রাজশাহী বুধবার, ২৪শে জুলাই ২০২৪, ১০ই শ্রাবণ ১৪৩১


স্কুলছাত্রকে পিটিয়ে আহত করলেন শিক্ষক, থানায় অভিযোগ


প্রকাশিত:
১৯ অক্টোবর ২০২৩ ১৮:২৫

আপডেট:
২৪ জুলাই ২০২৪ ১৫:৩১

প্রতীকী ছবি

বগুড়ার আদমদীঘিতে এক শিক্ষকের বিরুদ্ধে নাফিজ (১০) নামের পঞ্চম শ্রেণীর ছাত্রকে লাঠি দিয়ে পিটিয়ে আহত করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। নাফিজ উপজেলার সান্তাহার পৌর শহরের সাঁতাহার মহল্লার শেখ শামীমের ছেলে।

বৃহস্পতিবার (১৯ অক্টোবর) সকালে ওই ছাত্রের দাদা শেখ মঞ্জুরুল আলম ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেছেন।

অভিযোগে সুত্রে জানা গেছে, উপজেলার সান্তাহার পৌর শহরের হার্ভে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণীর ছাত্র নাফিজ। শেখ রাসেলের জন্মদিন উদযাপনের জন্য বুধবার সকাল ৮ টায় বিদ্যালয়ে যায়। বিদ্যালয় চলাকালীন সময় রতন বসাক নামের সহকারি শিক্ষক তাকে লাঠি দিয়ে বাম হাতের হেনার ওপর, পায়ে হাটুর নিচে এবং বাম চোখে ঘুষি মারেন। এরপর নাফিজ বাড়ি ফিরে এলে তার শরীরে প্রচন্ড জ্বর আসে। ঘটনাটি জানার পর তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করানো হয়। এরপর বৃহস্পতিবার সকালে সহকারী শিক্ষক রতনের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ করা হয়।

আরও পড়ুন: জাতীয় নির্বাচনে পর্যবেক্ষক টিম পাঠাবে ইইউ, থাকবে দুই মাস

আদমদীঘি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রেজাউল করিম রেজা অভিযোগ পাওয়া বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, তদন্তের জন্য সান্তাহার পুলিশ ফাঁড়ির উপ পরিদর্শক রকিব হোসেন দেওয়া হয়েছে।

সান্তাহার পুলিশ ফাঁড়ির উপ পরিদর্শক (এসআই) রকিব হোসেন জানান, থানায় লিখিত অভিযোগের পর সেটি তাকে তদন্তের জন্য বলা হয়েছে। তিনি তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন বলে জানিয়েছেন।

অভিযোগকারী শেখ মঞ্জুরুল আলম বলেন, আমি আমার নাতি নাফিজকে বেধরক মারপিট করায় রতন শিক্ষকের বিচার চাই।

অভিযুক্ত শিক্ষক রতন বসাক বলেন, শেখ রাসেল দিবসে বেলুন ফাটানোসহ দুষ্টুমি করাই একটু শাসন করা হয়েছে। আর অভিযোগকারী অভিযোগটি প্রত্যাহার করে নিচ্ছে বলে তিনি দাবি করেন।

 

 

 

 

আরপি/এসআর-১৩


বিষয়: মারধর


আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top