রাজশাহী বৃহঃস্পতিবার, ৪ঠা মার্চ ২০২১, ২১শে ফাল্গুন ১৪২৭


ভোটের মাঠে লড়বেন বউ-শাশুড়ি!


প্রকাশিত:
২১ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ১২:৫৫

আপডেট:
৪ মার্চ ২০২১ ১৫:৩০

ছবি: সংগৃহীত

বগুড়া পৌরসভা নির্বাচনে সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদে ভোটযুদ্ধে নেমেছেন বউ ও শাশুড়ি। পঞ্চম ধাপে আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারি এই পৌরসভায় ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। এবারের নিবার্চনে বউ জিতবেন নাকি শাশুড়ি- সিদ্ধান্ত নিতে হবে পৌরসভাবাসীকে। পারিবারিক কলহের জেরেই শাশুড়ির বিপক্ষে দাঁড়িয়েছেন ছেলের বউ।

ছোটছেলে ও মেয়েকে নিয়ে শাশুড়ি আর স্বামী ও ননদকে সাথে নিয়ে প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন ছেলের বৌ। এক বাড়ি থেকে ভোটের মাঠে প্রতিদ্বন্দ্বী হওয়ায় বউ-শাশুড়ির ভোট যুদ্ধ নিয়ে ভোটারদের মাঝে চলছে ব্যাপক আলোচনা।

জানা গেছে, বগুড়া পৌরসভার ১০, ১১, ১২ নং ওয়ার্ডে সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে লড়ছেন তিনবারের বিজয়ী খোদেজা বেগম। কিন্তু, তার এই ধারাবাহিকতায় এবার বাগড়া দিলেন পুত্রবধূ। জমি নিয়ে বিরোধের জেরে তার প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী হয়েছেন বড় ছেলের বউ রেবেকা সুলতানা। শাশুড়ি বর্তমান নারী কাউন্সিলর খোদেজা বেগম পর পর তিনবার নির্বাচিত কাউন্সিলর হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। তিনি স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করছেন।

কিন্তু এবার একই আসনে প্রার্থী হয়েছেন তারই ছেলের বউ (পুত্রবধূ) রেবেকা সুলতানা ওরফে লিমা। খোদেজা বেগম পেয়েছেন জবা ফুল প্রতীক আর লিমা পেয়েছেন চশমা প্রতীক। কাউন্সিলর প্রার্থী খোদেজা বেগম বলেন, টানা ১৭ বছর ধরে আমি সাধারণ ও গরিব মানুষের পক্ষে কাজ করেছি। তাদের বিপদে-আপদে পাশে দাঁড়িয়েছি। এসব কাজ কর্মের প্রতিদান এবারও ভোটাররা তাকে দেবেন বলে তার বিশ্বাস।

একই ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী পুত্রবধূ রেবেকা সুলতানা লিমা বলেন, দীর্ঘদিন তিনি ওয়ার্ডবাসীর সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করে যাচ্ছেন। তাতে তিনি ব্যাপক সাড়া পেয়েছেন। নির্বাচনে জয়ের ব্যাপারে তিনি শত ভাগ আশাবাদী। তারা দুজন ছাড়াও ৪ নম্বর ওয়ার্ডে প্রার্থী হয়েছেন আরো পাঁচজন। তারা হলেন ফাতেমা বেগম ছন্দ (আংটি), রাবেয়া খাতুন (টেলিফোন), আফরোজা আক্তার রিমা (আনারস), বিলাসী রানী সরকার (অটোরিকশা), শাহিনুর (দ্বিতল বাস)। এ পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে চারজন ২১টি সাধারণ কাউন্সিলর পদে ১৩০ জন এবং ৭টি সংরক্ষিত নারী আসনে ৫০ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। 

আরপি / এমবি-১১



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top