রাজশাহী বৃহঃস্পতিবার, ২৫শে এপ্রিল ২০২৪, ১২ই বৈশাখ ১৪৩১

স্মার্ট বাংলাদেশে সরকারি সেবা নিতে দপ্তরে যেতে হবে না: পলক


প্রকাশিত:
১৫ সেপ্টেম্বর ২০২৩ ০৭:৪৯

আপডেট:
২৫ এপ্রিল ২০২৪ ০০:৪০

ছবি: সমাপনী অনুষ্ঠান

স্মার্ট বাংলাদেশে সরকারি সেবা নেয়ার জন্য কাউকে সরকারি দপ্তরে যেতে হবে না, সবাই স্মার্ট ফোনেই সরকারি সকল সেবা পাবে বলে জানিয়েছেন তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এমপি।

বৃহস্পতিবার (১৪ সেপ্টেম্বর) দুপুরে রাজশাহী নগরীর বঙ্গবন্ধু হাইটেক পার্কের শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং ও ইনকিউভেশন সেন্টারের মিলনায়তনে ‘মাইক্রো কোর্স অন ইন্টেলেকচ্যুয়াল হিস্ট্রি অব স্টার্ট-আপ’ কোর্সের সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে পলক এসব বলেন।

জুনাইদ আহমেদ পলক এমপি বলেন, মেধাবীদের মেধার বিকাশ ঘটাতে এবং নতুন সুযোগ সৃষ্টির লক্ষ্যেই তৈরি হয়েছে হাইটেক পার্ক। স্মার্ট বাংলাদেশের চারটি স্তম্ভ শক্তিশালীভাবে গড়ে উঠলেই ২০৪১ সালে স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ে উঠবে। স্মার্ট নাগরিক হতে হলে দেশপ্রেমিক, অসাম্প্রদায়িক, উদ্ভাবনী ও সৃজনশীল হতে হবে। আজকের প্রজন্ম যেভাবে গড়ে উঠবে, ২০৪১ সালের বাংলাদেশ সেভাবে এগিয়ে যাবে।

আরও পড়ুন: বিয়ের আগের দিন সড়কেই ঝড়ল যুবকের প্রাণ

যখন যেখানে দরকার সেখানেই থাকবে স্মার্ট সরকার। সকল ক্ষেত্রে জনগণের সেবা সহজ করতে কাজ করছে সরকার। ব্যাংক, পাসপোর্ট অফিস ও স্থানীয় সরকারের ইউনিয়ন পর্যায় পর্যন্ত নাগরিকের সেবা আগের তুলনায় অনেক সহজ হয়েছে বলেও প্রতিমন্ত্রী উল্লেখ করেন।

উল্লেখ্য, ভবিষ্যতে স্টার্টআপ তৈরির লক্ষ্যে আয়োজিত এ কোর্সে রাজশাহীর ৫টি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ২৩৯ জন শিক্ষার্থী অংশ নেন।

এ সময় বঙ্গবন্ধু হাইটেক পার্কের ব্যবস্থাপনা পরিচালক জিএসএম জাফরউল্লাহ ও বিভাগীয় কমিশনার ড. দেওয়ান মুহাম্মদ হুমায়ূন কবীর অনুষ্ঠানে বক্তব্য করেন।

অনুষ্ঠানে জেলা প্রশাসক শামীম আহমেদ, বঙ্গবন্ধু হাইটেক পার্কের প্রকল্প পরিচালক এ.কে.এ.এম ফজলুল হক, ডিজিটাল উদ্যোক্তা এবং উদ্ভাবন ইকোসিস্টেম উন্নয়ন প্রকল্পের পরিচালক আবুল ফাতাহ মো: বালিগুর রহমান উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব হাইটেক পার্কের জয় সিলিকন টাওয়ারে ‘ওয়ান ফ্যামিলি, ওয়ান সিড’ উদ্যোগের আওতাধীন স্টার্টআপ স্টুডিও ‘স্মার্ট বাংলাদেশ লঞ্চপ্যাড’ এর উদ্বোধন করেন তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী।

 

 

আরপি/এসআর-০৫



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top