রাজশাহী রবিবার, ১৪ই এপ্রিল ২০২৪, ১লা বৈশাখ ১৪৩১

ইঞ্জিনিয়ারিং পরীক্ষায় পাস মার্কও তুলতে পারল না চ্যাট জিপিটি


প্রকাশিত:
১৫ এপ্রিল ২০২৩ ০০:০৬

আপডেট:
১৪ এপ্রিল ২০২৪ ০১:০৪

ফাইল ছবি

ভারতের অন্যতম কঠিন ইঞ্জিনিয়ারিং পরীক্ষায় পাস মার্কও তুলতে পারল না এআই চ্যাটবট চ্যাট জিপিটি। যদিও বলা হচ্ছে, তথ্যপ্রযুক্তি এবং ইঞ্জিনিয়ারিং সংক্রান্ত পেশায় মানুষের বিকল্প হতে চলেছে আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স। এমনকি শোনা যাচ্ছিল, বিশ্বের বড় বড় পরীক্ষা খুব সহজে পাশ করতে পারে চ্যাটজিপিটি। অন্যান্য পরীক্ষায় পাশ করলেও ভারতে জেইই পরীক্ষাতে আটকে গেল এইএআই চ্যাটবট।

বিশ্বের বেশ কিছু শক্ত পরীক্ষাই পাশ করে আলোড়ন ফেলে দিয়েছিল চ্যাট জিপিটি। যার মধ্যে রয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ওহারটন এমবিএ পরীক্ষা। কিছুদিন আগে শোনা যায় যে পরীক্ষার দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের চিকিৎসকরা মেডিসিন চর্চা করেন সেই পরীক্ষাতেও উত্তীর্ণ হয়েছে চ্যাট জিপিটি। কিন্তু জেইই পরীক্ষার পালা আসতেই ধরাশায়ী এই চ্যাটবট। উক্ত পরীক্ষায় মাত্র ১১টি উত্তর সঠিক দিতে পেরেছে চ্যাট জিপিটি।

ভারত তথা বিশ্বের অন্যতম কঠিন প্রতিযোগিতামূলক ইঞ্জিনিয়ারিং পরীক্ষা হিসাবে মনে করা হয় জেইই অ্যাডভান্সডকে। পড়ুয়ার দক্ষতা ও মেধা যাচাই করার জন্য অংক, পদার্থবিদ্যা, রসায়ন থেকে কঠিন প্রশ্ন রাখা হয় এই পরীক্ষায়। হাজার হাজার ছাত্র-ছাত্রী এই পরীক্ষা দিলেও তার মধ্যে খুব কম জনই পাশ করেন। অনেক কঠিন পরীক্ষা পাশ করলেও এই পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে পারেনি ওপেনএআই-এর চ্যাট বট চ্যাট জিপিটি।

লার্জ ল্যাঙ্গুয়েজ মডেল হিসাবে বিখ্যাত চ্যাট জিপিটি। যার ঝুলিতে রয়েছে সবরকম প্রশ্নের উত্তর। অনেক জটিল কাজ সমাধান করে দিতে পারে। চাকরির ইন্টারভিউ থেকে শুরু করে পছন্দের কলেজের অ্যাডমিশন সব ক্ষেত্রেই এখন মসিহা চ্যাট জিপিটি। এমনকি, গুগল জেনারেটেড কোডিং ইন্টারভিউয়ের উত্তর দিতেও ব্যবহার করা হচ্ছে প্রযুক্তিটি।

বিশেষজ্ঞদের মতে, বিশ্বে নতুন যুগের শুরু করতে চলেছে আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স। কিন্তু এই প্রযুক্তির ব্যবহার একটি নির্দিষ্ট সীমা অবধি রাখা উচিত বলে মত বিজ্ঞানীদের। কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা যত বেশি অ্যাডভান্স হবে তত বেশি বিপদ তৈরি হতে পারে মানুষের জন্য।

 

 

আরপি/এসআর-১৬



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top