রাজশাহী বুধবার, ২৮শে ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৬ই ফাল্গুন ১৪৩০


আমি যথেষ্ট স্ট্রং ও পজিটিভ মাইন্ডের: বর্ষা


প্রকাশিত:
১২ সেপ্টেম্বর ২০২৩ ০৩:০৬

আপডেট:
২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ০৫:৩৩

চিত্রনায়িকা বর্ষা। ফাইল ছবি

কাজের বাইরেও আলোচনায় থাকেন চিত্রনায়িকা আফিয়া নুসরাত বর্ষা। অনন্ত-বর্ষা জুটি নিয়ে ভক্তদের আগ্রহের কমতি নেই। তবে ট্রলের শিকারও হতে হয় তাদের। সম্প্রতি একটি বেসরকারি স্যাটেলাইট টেলিভিশনে দেয়া সাক্ষাৎকারে পোশাক ব্র্যান্ডের ভুল নাম উচ্চারণ করে ট্রলের শিকার হন বর্ষা।

সামাজিক মাধ্যমে ভিডিওটি ভাইরাল হয়ে যায়। কেউ কেউ তার এই বক্তব্যের মিমিক্রি করে নিজস্ব ফেসবুক পেজ বা ইউটিউবে প্রকাশ করছেন। এতেই ক্ষুব্ধ হয়েছেন তিনি। এই ভালো জিনিসগুলো তুলে না ধরে, খারাপ জিনিসগুলো তুলে ধরছেন। ’- আক্ষেপের সুরে কথাগুলো বলেছেন চিত্রনায়িকা বর্ষা।

এমন প্রসঙ্গে নিজের ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে কথা বললেন তিনি। বর্ষা বলেন, আমি বর্ষা যথেষ্ট স্ট্রং ও পজিটিভ মাইন্ডের একজন মানুষ। মাঝে মাঝে মনে হচ্ছে, যতটুকু আমি নিতে পারি তার থেকে বেশি আমাকে পেয়ে বসছে মানুষ। যারা যেটা বলার না তারাও সেটি বলে বেড়াচ্ছে। আমার কাছে মনে হয়, তারা ফ্রন্টে আসতে চায়। পপুলারিটি বাড়াতে চায়। তারা ফেসবুক পেজ খুলেছে। ইনকাম করে। তা না হলে এত ভালো কিছু থাকা সত্ত্বেও কেন নেগেটিভ কথা বলবে?

এ সময় অনন্ত জলিলের সঙ্গে তার দাম্পত্য জীবন টিকিয়ে রাখা প্রসঙ্গটিও সামনে আনেন। বর্ষার ভাষ্য, মিডিয়াতে মানুষের যা অবস্থা! এই যুগে এসে সংসার টেকানো কত কঠিন একটা বিষয়, সেই জায়গায় আমরা ১২ বছর সংসার করছি। সেপ্টেম্বরের ২৩ তারিখ ১২ বছর পূর্ণ হবে। দুটি সন্তানও আছে আলহামদুলিল্লাহ। এই ভালো জিনিসগুলো তুলে না ধরে, খারাপ জিনিসগুলো তুলে ধরছেন। আমার পেছনে লেগে আছেন তারা। আমি কোন পোশাক পরেছি, কোন রেস্টুরেন্টে যাই, কী ব্র্যান্ডের কাপড় পরলাম, কোনটার নাম ভুল বললাম। যদিও এটা আসলে আমার কাছে কোনো ম্যাটার করে না।

পোশাক ব্র্যান্ডের ভুল উচ্চারণ নিয়ে বর্ষা বলেন, আমি গুচিকে ‘গুছি’ বললাম নাকি ‘ঘুষি’ বললাম- সেটা তো আমার ব্যক্তিগত ব্যাপার। আমি তো এটা বলেই আজ ১২ বছর ব্র্যান্ডের দোকানে গিয়ে শপিং করি। যেখানে গিয়ে আমি প্রডাক্টটা কিনছি, তাদের তো সমস্যা হয় না আমার কথা বুঝতে।

এসব ট্রল আর মুখ বুঝে সহ্য করবেন না বর্ষা, নেবেন আইনি ব্যবস্থা। সে জন্য কয়েকটি ফেসবুক পেজ তালিকাভুক্ত করে রেখেছেন তিনি। নায়িকার ভাষ্য, কিছু মেয়ে আছে তাদের পেজগুলোতে এটা (ট্রল) করা হয়। আমি সব সময় মেয়েদের ভালো বলি। কারণ আমিও মেয়ে। কেন একটি মেয়ে অন্য মেয়েকে নিয়ে এসব কাজ করে তাদের পপুলারিটি বাড়াবেন? এ জন্য কয়েকটি পেজের লিস্ট করেছি। সামনে যদি সেখান থেকে ইচ্ছাকৃতভাবে নেতিবাচকভাবে আমাকে নিয়ে রিলস বা শর্টস বানায়, তাহলে সত্যিই তাদের বিরুদ্ধে আমি মানহানির মামলা কর।

 

আরপি/আআ



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top