রাজশাহী শনিবার, ২৮শে মে ২০২২, ১৫ই জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

প্রমোশন ছাড়াই ফেসবুকে রিচ বাড়ানোর উপায়


প্রকাশিত:
৬ এপ্রিল ২০২২ ০৪:১৬

আপডেট:
২৮ মে ২০২২ ০৭:১৩

ফাইল ছবি

ফেসবুকে কত কিছুই না শেয়ার হয়। কিন্তু সব পোস্ট কি সবার কাছে পৌঁছায়? পৌঁছায় না। ফেসবুক ফ্রেন্ড বা ফ্যানদের কাছে আপনার পোস্ট পৌঁছানোকেই রিচ বলে। নানা উপায়ে রিচ বাড়ানো যায়। অনেকেই এজন্য পেইড প্রমোশন করেন। কিন্তু সেটাই কিন্তু একমাত্র সমধানের পথ নয়। অর্গানিকভাবের রিচ বাড়ানো যায়।

নির্দিষ্ট সময় পর পর নিজেদের অ্যালগারিদম পরিবর্তন করে ফেসবুক। আজ যে পদ্ধতিতে রিচ বাড়াচ্ছেন কয়েক মাস বা কয়েকদিন পর সেই পদ্ধতিতে রিচ নাও বাড়তে পারে। ফেসবুক কখনই নিজেদের অ্যালগারিদম বা মডারেশন পলিশি নিয়ে জানায় না। সুতরাং নির্দিষ্ট ঠিক কোন কোন পদ্ধতিতে আপনার ফেসবুক পেজের রিচ বাড়বে তা বলা বেশ কঠিন।

কেন রিচ কমে যায়?

প্রথমেই জানুন ফেসবুক পোস্টের রিচ কেন কম হচ্ছে? ফেসবুক ব্যবহারকারীদের মনোভাব বুঝে তাদের কাছে পোস্ট রেকমেন্ড করে। ধরে নিন আপনার একটি ফেসবুক পেজ রয়েছে যেখানে আপনি খাবার সংক্রান্ত বিষয়ে পোস্ট করেন। আপনার ওই পেজ যারা লাইক করেছেন তাদের কাছে সেই পোস্ট পৌঁছানোর কথা। কিন্তু দেখা গেল যারা লাইক করেছেন তাদের মধ্যে অনেকেই আপনার পোস্টগুলো পছন্দ করছেন না, অথবা হয়তো আগে পছন্দ করতেন কিন্তু এখন সেগুলো পছন্দের তালিকায় নেই। ফেসবুক কিন্তু সবই বুঝতে পারে। এবং যারা আপনার পোস্ট পছন্দ করছেন না তাদের কাছে আপনার পেজের পোস্টগুলো রেকমেন্ড করবে না। ফলে কমবে আপনার পোস্ট রিচ।

কোন সময়ে কন্টেন্ট পোস্ট করছেন তার উপর নির্ভর করে আপনার পোস্ট রিচ হয়। আপনি কোনও পোস্ট যদি মাঝরাতে করেন তাহলে তা এমনিতেই বাংলাদেশি ব্যবহারকারীদের কাছে কম পৌঁছবে। পাশাপাশি ফেসবুকে সবসময় ট্র্যাফিক সমান থাকে না, ফলে ট্র্যাফিক যখন কম থাকে তখন পোস্ট করলে রিচ কমবে আপনার পেজের কন্টেন্টের।


আপনার পোস্ট করা কন্টেন্টে যত ভালো তথ্য থাকে রিচ তত বেশি হওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

কীভাবে পেজের রিচ বাড়াবেন?

প্রথমত

আপনার পোস্টে যেন হিউম্যান টাচ থাকে সে বিষয়ে নজর দিন। অর্থাৎ হিউম্যান ইন্টারেস্ট কন্টেন্টের উপর নজর দিন। মাঝে মাঝে বিভিন্ন ব্যক্তিকে ট্যাগ করে পোস্ট করুন।

দ্বিতীয়ত

গতানুগতিক পোস্ট করলেই হবে না। মাঝে মধ্যে ইনফোগ্রাফিক্স বা ভিডিও পোস্ট করুন। ওপেন এন্ডেড প্রশ্ন পোস্ট করুন। যার মাধ্যমে আপনার পেজের ফলোয়ার্স বা আপনার বন্ধুরা কোনও মন্তব্য করতে পারবেন। তাদের সঙ্গে বিভিন্নভাবে যোগাযোগ বাড়াতে হবে।

​তৃতীয়ত

ক্লিক বেইট কোনও কিছু পোস্ট করা যাবে না। কারণ ফেসবুকের অ্যালগরিদম এবং এআই অত্যন্ত বুদ্ধিমান। তারা পুরো বিষয়টি ধরে ফেলবে। তাই ক্লিক বেইট কোনও কন্টেন্ট পোস্ট করা একদম উচিত নয়।

চতুর্থত

অর্গানিক রিচের ডেটা অ্যানালিসিস করুন নিয়মিত। ফেসবুকের ইনসাইট বোঝার চেষ্টা করতে হবে। কোনও দিন রিচ বাড়ছে, কোনদিন কমছে তা যেমন বুঝতে হবে তেমন কেন বাড়ছে বা কমছে তা বুঝতে হবে।

এসব বিষয় মাথায় রাখলে আপনি অর্গানিকভাবেই আপনার প্রোফাইল বা পেজের রিচ বাড়াতে পারবেন।

 

 

 

আরপি/এসআর-০৪



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top