রাজশাহী মঙ্গলবার, ১৬ই জুলাই ২০২৪, ২রা শ্রাবণ ১৪৩১


মুজিববর্ষে রাজশাহী কলেজের চমক ‘বুনন’


প্রকাশিত:
৭ মার্চ ২০২০ ০৬:১৬

আপডেট:
৭ মার্চ ২০২০ ০৬:১৭

 

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপনের লক্ষ্যে সরকার ২০২০ সালের ১৭ মার্চ থেকে ২০২১ সালের ২৬ মার্চ পর্যন্ত ‘মুজিববর্ষ’ হিসেবে ঘোষণা দিয়েছে। মুজিববর্ষ পালনে দেশের প্রতিটি প্রতিষ্ঠান ও দপ্তর বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করেছে।

দেশসেরা রাজশাহী কলেজ বর্ষটি উদযাপনে বছরজুড়ে বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ ও ইতোমধ্যে তা বাস্তবায়ন করে চলেছে। এ উপলক্ষ্যে রাজশাহী কলেজের রয়েছে ব্যতিক্রমী উদ্যোগ। বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে স্বল্প দৈর্ঘ্যরে চলচ্চিত্র নির্মাণ করেছে দেশসেরা কলেজটি। ‘বুনন’ নামের চলচ্চিত্রটি স্ক্রিনিং হবে আগামী ১৭ মার্চ। কলেজ অধ্যক্ষ প্রফেসর মহা. হবিবুর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

নাট্যজন মাহমুদ হোসেন মাসুদের গল্পে চলচ্চিত্রটি রচনা করেছেন কলেজ অধ্যক্ষ প্রফেসর মহা. হবিবুর রহমান। এর চিত্রনাট্য ও পরিচালনা করেছেন কলেজের মনোবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী ও নাট্য অভিনেতা মাইনুল ইসলাম টিপু। চিত্রগ্রহণ করেছেন শাহরিয়ার চয়ন।

ছবির গল্পে স্থান পেয়েছে বঙ্গবন্ধু স্বাধীনতার ডাক অর্থাৎ ৭ মার্চের ভাষণ, মুক্তিযুদ্ধ, মুক্তিযুদ্ধ পরবর্তী সময়ে যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশ পুণর্গঠন, বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চার নেতার মৃত্যুর পরে বঙ্গবন্ধুর উত্তরসূরীদের সুনিপুণভাবে দেশ পরিচালনার চিত্র ফুটে উঠেছে চলচ্চিত্রে।

এই চলচ্চিত্রের অন্যতম আকর্ষণ বঙ্গবন্ধুর চরিত্রে অভিনয় করা আরুক মুন্সী। গোপালগঞ্জের কাশিয়ানি উপজেলার প্রত্যন্ত গ্রামে জন্ম নেয়া আরুক মুন্সী দেখতে অবিকল বঙ্গবন্ধুর মতো। তিনি হেঁটে গেলে মনে হবে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানই হেঁটে যাচ্ছেন। পোশাক-আশাক পরেন বঙ্গবন্ধুর মতই। তাঁকে নিয়ে বিভিন্নসময় গণমাধ্যমে খবরও প্রকাশিত হয়েছে।

চলচ্চিত্রের রচয়িতা কলেজ অধ্যক্ষ প্রফেসর মহা. হবিবুর রহমান ও এর নির্মাতা মাইনুল ইসলাম টিপু জানান, বঙ্গবন্ধুর স্বাধীনতার ডাক যখন দেন, অর্থাৎ ৭ মার্চ থেকে গল্প শুরু হয়েছে। তাঁর ভাষণের পরে মুক্তিযুদ্ধ ও এরপর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন, এর পরবর্তী সময়ে যুদ্ধবিধ্বস্ত একটি দেশকে পুণর্গঠনের কাজ এবং মাঝখানে ৭৫ এ বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চার নেতার মৃত্যুর ফলে মানুষের মধ্যে যে শঙ্কার উদয় হয় যে, দেশটি এগোবে কিভাবে? সেগুলো ঘটনাগুলোই চলচ্চিত্রে দেখানো হবে।

এছাড়াও দেশ কিভাবে এগোবে সেই শঙ্কা উড়িয়ে দিয়ে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ লালনকারী ও তার পরিবারের উত্তরসূরী যারা আছেন, তারা দেশের হাল যেভাবে ধরেছেন এবং বঙ্গবন্ধুর ‘সোনার বাংলা’ গড়তে বিভিন্ন মেগা ও অন্যান্য উন্নয়ন প্রকল্প বঙ্গবন্ধু কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাস্তবায়ন করে চলেছেন, সেই গল্পগুলো চিত্রায়িত হয়েছে এই স্বল্প দৈর্ঘ্যরে ছবিতে।

আরপি/ এএন



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top