রাজশাহী শুক্রবার, ২৬শে ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১৪ই ফাল্গুন ১৪২৭

সার্ভার জটিলতায় চারঘাটে জন্ম-মৃত্যু নিবন্ধন কার্যক্রম বন্ধ


প্রকাশিত:
১৯ জানুয়ারী ২০২১ ১৮:৪২

আপডেট:
২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ০৩:৪২


সার্ভার জটিলতায় প্রায় দুই মাস যাবত রাজশাহীর জেলার চারঘাট উপজেলায় বন্ধ রয়েছে জন্ম-মৃত্যুসহ সব ধরনের অনলাইন নিবন্ধন কার্যক্রম। ফলে সন্তানদের স্কুলে ভর্তি করাতে গিয়ে, পাসপোর্ট বানাতে গিয়ে কিংবা বিভিন্ন অফিসিয়াল কাজ করতে গিয়ে নিবন্ধনের জন্য চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন নাগরিকরা।

সদরপুর উপজেলার ১ পৌরসভা ও ৬টি ইউনিয়নে শত শত নিবন্ধন আবেদন জমা পড়েছে। ইউনিয়নগুলোতে সেবা মাধ্যম হিসেবে একটি অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ সেবা হচ্ছে জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন। স্কুলে-কলেজে ভর্তি, সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরি, বিয়ে, জমি বেচাকেনা, পাসপোর্টসহ গুরুত্বপূর্ণ বিভিন্ন কাজে ব্যবহৃত হয় জন্মনিবন্ধন।

অধিক গুরুত্বপূর্ণ হওয়ায় নাগরিকরা জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন করার জন্য সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদে ভিড় করছেন। ব্যক্তির আবেদন ফরমসহ অন্যান্য তথ্য ইউনিয়ন পরিষদের সচিব ও উদ্যোক্তাদের কাছে জমা দিচ্ছেন অভিভাবকরা। কিন্তু আবেদন করার পর থেকেই শুরু হচ্ছে তাদের বিড়ম্বনা ও চরম ভোগান্তি। দিনের পর দিন, মাসের পর মাস অপেক্ষার প্রহর গুনতে হচ্ছে।

রাত-দিন ইউনিয়নের উদ্যোক্তারা অনলআইনে বসে থাকলেও সার্ভার জটিলতায় কোনো নিবন্ধন কার্যক্রম করতে পারছেন না তারা। ফলে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ভর্তিচ্ছুক শিক্ষার্থীরাসহ নাগরিকরা চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন।

সরকারের গুরুত্বপূর্ণ একটি সেবা জন্ম ও মৃত্যু সনদ। অনলাইনের কাজের অবস্থা বেগতিক দেখে হতাশা প্রকাশ করেছেন শত শত অভিভাবক।

পৌরসভায় জন্মসনদ নিতে আসা অভিবাবক ইব্রাহিম বলেন, আমি বেশ কয়েকদিন ধরে জন্মসনদ নেওয়ার জন্য পৌরসভায় যাচ্ছি। কিন্তু সার্ভার কাজ না করায় প্রতিদিন ঘুরতে হচ্ছে। আমার ছেলেকে টিকা কার্ড দিয়ে বিদ্যালয়ে ভর্তি করিয়েছি। কিন্তু জন্মসনদ বাধ্যতামূলক, লাগবেই। তাই প্রতিদিন পরিষদে এসে খোঁজ নিচ্ছি।

এ ব্যাপারে ইউনিয়ন পরিষদের উদ্যোক্তারা জানিয়েছেন, 'সার্ভার জটিলতায় শত শত নিবন্ধন আবেদন জমা পড়েছে। রাত-দিন অনলাইনে বসে থেকেও কোনো নিবন্ধন করতে পারছি না। প্রতিনিয়ত মানুষ ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারে ভিড় করছে। কখন পাবে নিবন্ধন সে বিষয়ে কোনো সুনির্দিষ্ট সময় বলতে পারছি না।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সৈয়দা সামিরা বলেন, সারাদেশের মত চারঘাট উপজেলাতেও সার্ভারে সমস্যা করছে। বিষয়টি অবগত আছি। সমাধানের জন্য উর্ধতন কতৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করেছি। আশা করি স্বল্প সময়ের মধ্যে সমাধান হবে।

আরপি/ এআর


বিষয়:


আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top