রাজশাহী শনিবার, ২৮শে মে ২০২২, ১৫ই জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

রাজশাহীতে

বাবার গলাকেটে সেপটিক ট্যাংকে লাশ লুকিয়ে রাখলেন ছেলে!


প্রকাশিত:
২০ জানুয়ারী ২০২২ ১১:৫৪

আপডেট:
২০ জানুয়ারী ২০২২ ১১:৫৬

প্রতীকী ছবি

দ্বিতীয় বিয়ে করতে চাওয়ায় বাবাকে গলাকেটে হত্যার অভিযোগ উঠেছে রাজশাহী নগরীর দামকুড়া থানা এলাকার স্বপন (৩২) নামের এক ছেলের বিরুদ্ধে। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, দ্বিতীয় বিয়ে করতে চাওয়ায় বাবাকে গলাকেটে হত্যার পর টয়লেটের সেফটিক ট্যাঙ্কিতে লাশ পুঁতে রাখা হয়।

রাজশাহী নগরীর দামকুড়া থানা এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে। আজ বৃহস্পতিবার সকালে স্থানীয় পুলিশ মৃতের লাশ উদ্ধার করে। মৃত ব্যক্তি সাজ্জাদ হোসেন (৬৫)। গত মঙ্গলবার দিবাগত রাত বারোটার দিকে গলাকেটে হত্যা করা হয় বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

নগরীর দামকুড়া থানার ওসি মাহবুব আলম জানান, মঙ্গলবার রাত থেকে সাজ্জাদ হোসেন নিখোঁজের ঘটনায় তার আরেক ছেলে আব্দুল হাদী থানায় একটি জিডি করেন। এই জিডির সূত্র ধরে পুলিশ এক্সেলে স্বপনকে জিজ্ঞাসাবাদ করে।

পরে স্বপন স্বীকারোক্তি দেন, তিনি তার বাবা সাজ্জাদকে প্রথমে শ্বাসরোধ করে হত্যার চেষ্টা করেন। এতে ব্যর্থ হয়ে পড়ে গলাকেটে হত্যা করেন। হত্যার পর বাবা সাজ্জাদ হোসেনের লাশ বাড়ির টয়লেটের সেফটিক ট্যাঙ্কিতে ফেলে দেন।

অভিযুক্ত স্বপন আরও জানান, এক বছর আগে তার মা মারা যান। এরপর বাবা দ্বিতীয় বিয়ে করার কথা বলছিলেন বাসায়। দ্বিতীয় বিয়ে করলে সম্পত্তি ভাগ হয়ে যাবে- এই চিন্তা থেকেই সে তার বাবাকে হত্যা করে।

 

আরপি/এমএমএইচ-০২



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top