রাজশাহী বৃহঃস্পতিবার, ২৫শে এপ্রিল ২০২৪, ১২ই বৈশাখ ১৪৩১


২২ শতাংশ রেমিট্যান্স কমলো অক্টোবরে


প্রকাশিত:
২ নভেম্বর ২০২১ ১৮:৫২

আপডেট:
২৫ এপ্রিল ২০২৪ ০০:২৮

প্রতীকী ছবি

প্রবাসীদের পাঠানো রেমিট্যান্সের পরিমাণ অক্টোবরেও কমে ১৬৪ কোটি ৭০ লাখ ডলারে নেমেছে। যা গত বছরের একই সময়ের তুলনায় কমেছে প্রায় ২২ শতাংশ।

চলতি অর্থবছরের জুলাই থেকে অক্টোবর পর্যন্ত চার মাসের হিসাবেও নেতিবাচক প্রবৃদ্ধি হয়েছে। এ সময়ে আগের বছরের একই সময়ের চেয়ে ২০ শতাংশ কম রেমিটেন্স এসেছে।

সোমবার বাংলাদেশ ব্যাংক অক্টোবর মাসের প্রবাসী আয় দেশে আসার তথ্য প্রকাশ করে। কেন্দ্রীয় ব্যাংকের মুখপাত্র সিরাজুল ইসলাম এ তথ্য জানান।

করোনাভাইরাস মহামারীর মধ্যে ২০২০ সালে রেমিট্যান্স আসার পরিমাণ বেড়েছিল। ওই বছর অক্টোবরে প্রবাসীরা পাঠিয়েছিলেন ২১০ কোটি ডলার। এ হিসাবে গত বছরের অক্টোবরের তুলনায় গত মাসে রেমিট্যান্স কমেছে ২১ দশমিক ৬৫ শতাংশ।

চলতি পঞ্জিকা বছরের জুন থেকে ক্রমাগত রেমিট্যান্স কমছে বাংলাদেশে, যা অক্টোবর পর্যন্ত অব্যাহত রয়েছে।

এ বিষয়ে অগ্রণী ব্যাংকের চেয়ারম্যান জায়েদ বখত বলেন, “গত বছর বাংলাদেশে রেকর্ড পরিমাণ রেমিট্যান্স এসেছিল।স্বাভাবিকভাবেই এবার কিছু কম আসছে।

“তাছাড়া মানুষ দেশের বাইরে যেতে শুরু করেছে। নগদ প্রণোদনার ফলে গত বছর বৈধ চ্যানেলে টাকা আসছিল। কিন্তু দেশের বাইরে যেতে টাকা বেশি দরকার হওয়ায় আবার হুন্ডির মাধ্যমে দেশে টাকা ঢুকছে বলে মনে হচ্ছে।”

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সর্বশেষ হিসাবে চলতি অর্থবছরের জুলাই থেকে অক্টোবর পর্যন্ত মোট রেমিট্যান্স এসেছে ৭৫৪ কোটি ডলার। গত অর্থবছরের একই সময়ে যা ছিল ৮৮২ কোটি ডলার। শতকরা হিসাবে রেমিট্যান্স কমেছে ২০ শতাংশ।

রেমিট্যান্স আসার ঊর্ধ্বমুখী ধারার মধ্যে চলতি বছরের জুন থেকে মাসওয়ারি প্রবাসী আয় দেশে আসা কমতে শুরু করে। মে মাসে এসেছিল ২১৭ কোটি ডলার। এরপর জুন মাসে ১৯৪ কোটি, জুলাইতে ১৮৭ কোটি, অগাস্টে ১৮১ কোটি ও সেপ্টম্বরে ১৭২ কোটি ডলার রেমিট্যান্স আসে।

 

 

আরপি/এসআর-০৩



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top