রাজশাহী শনিবার, ২৪শে ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৩ই ফাল্গুন ১৪৩০


ধান ক্ষেতে পানি না পেয়ে আদিবাসী কৃষকের আত্মহত্যা, তদন্তে কমিটি


প্রকাশিত:
২৯ মার্চ ২০২২ ২৩:২৭

আপডেট:
২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ০৬:০৩

ছবি: সংগৃহীত

রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলার নিমঘুটু গ্রামে সেচের পানি না পেয়ে বিষপানে দুই কৃষকের 'আত্মহত্যা'র ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন করেছে কৃষি মন্ত্রণালয়।

মন্ত্রণালয়ের যুগ্মসচিব (সার ব্যবস্থাপনা ও মনিটরিং) মো. আবু জুবাইর হোসেন বাবলুকে আহ্বায়ক করে চার সদস্য বিশিষ্ট এই কমিটি গঠন করা হয়। সম্প্রতি মন্ত্রণালয় থেকে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে।

কমিটির বাকি সদস্যরা হলেন- রাজশাহীর জেলা প্রশাসক, বিএডিসি'র (নাটোর) নির্বাহী প্রকৌশলী (ক্ষুদ্রসেচ) মো. সাজ্জাদ হোসেন এবং বিএমডিএ'র (নওগাঁ) নির্বাহী প্রকৌশলী মো. সমশের আলী।

গত ২৪ মার্চ একটি অনলাইন পত্রিকা এবং ২৭ মার্চ একটি দৈনিক পত্রিকায় প্রকাশিত খবরে দুই কৃষকের মৃত্যুর কারণ এবং সেচের পানি সময়মত না পাওয়ার কারণ সরেজমিতে তদন্ত করে সাত কর্মদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন দাখিল করতে বলা হয়েছে কমিটিকে।

গত বুধবার ক্ষুদ্র জাতিসত্তার কৃষক অভিনাথ মার্ডি (৩৬) ও তার চাচাতো ভাই রবি মারান্ডি (২৭) বিষপান করেন। বুধবারই অভিনাথ মারা যান। আর দুই দিন পর শুক্রবার মারা যান রবি।

এ ঘটনায় অভিনাথের স্ত্রী রোজিনা হেমব্রম বরেন্দ্র বহুমুখী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (বিএমডিএ) গভীর নলকূপের অপারেটর সাখাওয়াত হোসেনের বিরুদ্ধে আত্মহত্যার প্ররোচণার মামলা করেন। পানি না দিয়ে তিনি বিষপান করতে বলেছিলেন বলে মামলায় অভিযোগ করা হয়।

অন্যদিকে একই অভিযোগ নিয়ে রবি মারান্ডির ভাই সুশীল মারান্ডিও রোববার বেলা ১১টায় গিয়েছেন গোদাগাড়ী থানায়। তিনিও অপারেটর সাখাওয়াতের বিরুদ্ধে মামলা করেন।

 

আরপি/এসআর-০৬



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top