রাজশাহী মঙ্গলবার, ১৮ই জুন ২০২৪, ৫ই আষাঢ় ১৪৩১


রাজশাহী কলেজে বর্ণাঢ্য আয়োজনে বঙ্গবন্ধুর জন্মবাষির্কী ও শিশু দিবস উদযাপন


প্রকাশিত:
১৭ মার্চ ২০২১ ২২:২৭

আপডেট:
১৮ জুন ২০২৪ ১১:৪৭

ছবি: রাজশাহী লেজ চত্বর থেকে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের হয়

রাজশাহী কলেজে বেলুন উড়িয়ে, বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে পুস্তস্তবক অর্পন, কেক কাটা, আলোচনা সভা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, পুরস্কার বিতরণীসহ বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্যদিয়ে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ১০১ তম জন্মবাষির্কী ও জাতীয় শিশু দিবস উদযাপিত হয়েছে ।

এ উপলক্ষে বুধবার (১৭ মার্চ) সকালে কলেজ চত্বর থেকে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের হয়ে নগরীর প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে পুনরায় কলেজ চত্বরে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালের পাদদেশে এসে শেষ হয়। পরে কলেজ অডিটরিয়ামে বঙ্গবন্ধুর জীবনী শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় কলেজ অধ্যক্ষ (ভারপ্রাপ্ত) প্রফেসর মোহা. আব্দুল খালেকের সভাপতিত্বে ও মনোবিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যপক নিতাই কুমার সাহার সঞ্চচলনায় বক্তব্য রাখেন সদ্য বিদায়ী অধ্যক্ষ প্রফেসর মহা. হবিবুর রহমান, রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর ড. খন্দকার মুজাহিদুল হক প্রমূখ।

প্রফেসর মহা. হবিবুর রহমান বলেন, বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উদযাপনের আগেই আমরা স্বল্প উন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে পদার্পন করেছি। স্বাধীনতার ৫০ বছরেই বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ার স্বপ্ন পূরণে দেশ অনেক দূর এগিয়ে গেছে। আগামী প্রজন্ম অথার্ৎ আজকের শিশুরা বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও দর্শনে অনুপ্রাণিত হয়ে আগামীতে সোনার বাংলা বিনির্মানে হাল ধরবে বলে প্রত্যয় ব্যক্ত করেন তিনি।

শুধু রাজশাহী কলেজের শিক্ষার্থীরা নয়, জাতিগত ভাবে বঙ্গবন্ধুর প্রতি গভীর ভালোবাসা থেকে তরুণ প্রজন্ম দিনটি উৎসব উদ্দীপনার মধ্যে দিয়ে উদযাপন করছে বলে জানান রাজশাহী কলেজের অধ্যক্ষ (ভারপ্রাপ্ত) প্রফেসর মোহা আব্দুল খালেক।

তিনি জানান, বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ার স্বপ্ন পূরণে প্রধানমন্ত্রীর দীপ্ত প্রদক্ষেপে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। দূর্নীতির লাগাম টেনে ধরতে পারলে ২০৪১ সালের আগেই বাংলাদেশ উন্নত দেশের কাতারে পৌঁছে যাবে বলে প্রত্যাশা করেন তিনি।

এসময় বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষকবৃন্দ ও শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

আরপি/ এসআই-১



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top