রাজশাহী বুধবার, ২৮শে ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৬ই ফাল্গুন ১৪৩০

রাজশাহীতে আসামিদের জামিন শুনানির জন্য দুটি ভার্চুয়াল কোর্ট


প্রকাশিত:
১২ মে ২০২০ ২২:২০

আপডেট:
১৩ মে ২০২০ ০৩:২০

ছবি: সংগৃহীত

করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে জনসমাগম এড়াতে আদালতের নিয়মিত কার্যক্রম চলছে না। তাই আসামিদের জামিন আবেদন গ্রহণ ও শুনানির জন্য রাজশাহীতে দুটি ভার্চুয়াল কোর্ট সৃষ্টি করা হয়েছে। এখন থেকে আইনজীবীরা ঘরে বসেই অনলাইনে জামিনের আবেদন করতে পারবেন। অংশ নেবেন শুনানিতে। আদালত সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

সূত্রমতে জানা যায়, রাজশাহীর কারাগারে বন্দী আসামিদের জামিন-শুনানির জন্য সুপ্রীম কোর্টের নির্দেশনা মোতাবেক রাজশাহীর চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে এ দুটি ভার্চুয়াল কোর্ট সৃষ্টি করা হয়েছে। এখন থেকে আইনজীবীরা ই-মেইলে বা mycourt.judiciary.org.bd লিংক ব্যবহার করে তার মক্কেলের জামিনের আবেদন করতে পারবেন।

আবেদনপত্রে কোর্ট ফি লাগিয়ে মামলার নম্বর লিখে তা স্ক্যান করে বা ছবি তুলে পাঠাতে হবে। আইনজীবীকে তার ই-মেইল আইডি এবং মোবাইল নম্বর অবশ্যই সাথে দিতে হবে। আদালত থেকে অনলাইন শুনানির জন্য একটি তারিখ নির্ধারণ করা হবে।

এরপর শুনানির জন্য ঠিক করা দিন ও সময় সংশ্লিষ্ট আইনজীবীকে ই-মেইলে ও মোবাইলে বিষয়টি জানানো হবে। নির্ধারিত সময়ে ওই আইনজীবী ইমেইলে পাঠানো লিংকে ক্লিক করেই ভিডিও কনফারেন্সে মাধ্যমে শুনানিতে অংশ নিতে পারবেন।

রাজশাহী জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেসির জন্য জেলার বাগমারা, দুর্গাপুর, বাঘা ও চারঘাট উপজেলার জন্য নির্ধারিত হয়েছে এক নম্বর ভার্চুয়াল কোট। এর বিচারক সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রে মো. আব্দুল্লাহ আল আমিন ভুঁইয়া।

এই কোর্টের ই-মেইল হলো- [email protected]

এই কোর্টে সহায়তাকারী হিসেবে থাকবেন স্টেনোগ্রাফার এসএম নূরে কামাল। তার মোবাইল নম্বর- ০১৮৩৬- ৯৫৭৭৫১।

রাজশাহীর গোদাগাড়ী, তানোর, পুঠিয়া ও মোহনপুর উপজেলার জন্য নির্ধারিত হয়েছে দুই নম্বর ভার্চুয়াল কোট। এর বিচারক সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. সাইফুল ইসলাম।

এই কোর্টের ই-মেইল হলো- [email protected]

এই কোর্টে সহায়তাকারী হিসেবে আছেন স্টেনো টাইপিস্ট মিজানুর রহমান। তার মোবাইল নম্বর- ০১৭৭১-৯০৬২২৯।

সূত্র আরও জানায়, জামিন মঞ্জুর হলে বেইলবন্ড স্ক্যান বা ছবি তুলে আদালতে পাঠাতে পাঠাবেন আইনজীবী। এরপর কারাগারে কাজগ পৌঁছানোর পর জামিন হওয়া আসামির মুক্তি মিলবে। আদালত সূত্র বলছে, প্রক্রিয়াটি জটিল মনে হলেও ই-মেইলে আবেদন শুরু করলে ধাপে ধাপে তা এমনিতেই সহজ হয়ে যাবে।

 

আরপি/এমএএইচ



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top