রাজশাহী বুধবার, ২৪শে জুলাই ২০২৪, ১০ই শ্রাবণ ১৪৩১

রাজশাহীতে সরকারি অ্যাম্বুলেন্স ব্যবহার করেন ডাক্তার


প্রকাশিত:
২২ ডিসেম্বর ২০১৯ ২১:৩৮

আপডেট:
২৪ জুলাই ২০২৪ ১৫:২৩

ছবি: সংগৃহীত

প্রতিদিনই প্রায় ৬শ’ রুগি সেবা নিতে আসেন ৫০ শয্যার হাসপাতালে পবা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে। এটি ৫০ শয্যার উল্লেখ থাকলেও ৩১ শয্যার কার্যক্রমও সঠিকভাবে হয় না। ডাক্তার ও ওষুধের পরিমান বৃদ্ধিতো হয়নি উপরুন্ত বরাদ্দ আগের মতই। ফলে রুগি সেবায় হিমশিম খেতে হয়। স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আসা শতশত মানুষ প্রয়োজনীয় স্বাস্থ্য সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে প্রতিনিয়ত।  

এরইমধ্যে আবার অবৈধভাবে এই হাসপাতালের অ্যাম্বুলেন্স ব্যক্তিগতভাবে ব্যবহারের অভিযোগ উঠেছে দায়িত্বরত ডা. রাবেয়া বসরি’র বিরুদ্ধে।

জানা গেছে, স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে দায়িত্বপ্রাপ্ত হওয়ার পরপরই দু’টি অ্যাম্বুলেন্সের একটি বিভিন্ন কাজে তিনি ব্যবহার করে আসছেন। উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে বিজয় দিবস উপলক্ষে প্রস্তুতি সভায় তিনি অ্যাম্বুলেন্স নিয়ে উপজেলা পরিষদ চত্বরে আসেন। এ নিয়ে তার বিরুদ্ধে নানা গুঞ্জন শুরু হয়।

 প্রয়োজনীয় সরঞ্জামাদির অভাব রয়েছে এখানে। এছাড়াও, ইসিজি ও আল্ট্রাসনোগ্রাফি মেশিন থাকলেও তা নিজেরাই অকেজো করে রাখে বলে অনেকের অভিযোগ।


পবা উপজেলায় প্রায় ৪ লাখ জনসংখ্যা। এরপরও গোদাগাড়ী উপজেলার বেশকিছু রোগী প্রতিদিনই এই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে সেবা নিয়ে থাকেন। অনেকেই অভিযোগ করেছেন মেশিন অপারেটর’র ইচ্ছাকৃত এবং প্রাইভেট ক্লিনিকের সাথে যোগাযোগ থাকায় মেশিন দু’টি অকেজো করে রাখা হয়েছে।

চিকিৎিসা নিতে আসা ভূক্তভোগীরা জানান, এর আগে এক্স-রে মেশিন আলোর মুখ দেখেননি। এক্স-রে মেশিন অপারেটরের দৌরাত্ম সম্পর্কের সংশ্লিষ্ট জানেন। তাকে অন্য স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বদলী করলেও প্রভাব খাটিয়ে তিনি এই কমপ্লেক্সেই ঘুরে আসেন। 

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন বলেন, বর্তমান সময়ে এই কমপ্লেক্সে সঠিক সময়ে উপস্থিত ও শৃংখলার অভাব দেখা দিয়েছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে থেকে জানা যায়, রোগীদের সেবায় সরকারিভাবে যে ওষুধ আসে তা আগের তুলনায় অনেক বেশি, তবে রোগীদের শতভাগ চাহিদা পূরণ সম্ভব হয় না। লোকবল ও নতুন ভবনের জন্য পর্যাপ্ত পরিমাণ বরাদ্দ প্রদান করা হলে রুগিদের শতভাগ সেবা প্রদান নিশ্চিত করা যাবে বলে জানানো হয়।

অ্যাস্বুলেন্স ব্যবহার ও স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স বিষয়ে জানতে চাইলে উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা রাবেয়া বসরি বলেন, তিনি সিভিল সার্জন অফিসে ব্যস্ত আছেন।

 

আরপি/এমএইচ



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top