রাজশাহী সোমবার, ২০শে মে ২০২৪, ৬ই জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

রাজশাহীতে পানির জন্য আদিবাসীর বিষপান মামলার বিচার শুরু


প্রকাশিত:
২৩ এপ্রিল ২০২৪ ১৪:২৪

আপডেট:
২৩ এপ্রিল ২০২৪ ১৫:২৮

রাজশাহী পোস্ট

রাজশাহীর গোদাগাড়ীর নিমঘুটু গ্রামের দুই আদিবাসী কৃষকের আত্মহত্যার ঘটনায় দায়েরকৃত মামলার বিচার শুরু হয়েছে। সোমবার (২২ এপ্রিল) দুপুরে রাজশাহী চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য আগামী ১৯ জুন পরবর্তী দিন ধার্য করেন।

রাজশাহী ব্লাস্টের সমন্বয়কারী এডভোকেট সামিনা বেগম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, ঘটনাটি সারাদেশেই চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছিল। এতবড় চাঞ্চল্যকর একটি মামলা বিচারিক প্রক্রিয়ার ফাঁদে পড়ে পিছিয়ে পড়েছে। মামলার বছরেই ২০ নভেম্বর মামলার চার্জশিট গঠন হয়। পরে ২০২৩ সালের ২১ জুন তারিখে স্বাক্ষীর জন্য প্রস্তুত হয়। তারপর থেকে বিভিন্ন কারণে স্বাক্ষীর ধার্যদিন পরিবর্তন হতে থাকে।

তিনি আরও বলেন, ২০২২ সালের মামলা ২০২৩ সালের জুনে সাক্ষ্যগ্রহণের পর্যায়ে আসে, সোমবার দিয়ে সাতটি ডেট চেঞ্জ হলো। একটা ডেট চেঞ্জ হলে সবাইকে ভোগান্তির শিকার হতে হয়। সময়ের পদ্ধতিগত সিস্টেমের মধ্যে যে জাং গুলো আছে সেগুলো পরিষ্কার না করলে যতই সেন্সিটিভ মামলা হোক দ্রুত বিচার করতে পারি না। বিচারের দীর্ঘসূত্রিতা বিচার প্রার্থীদের হয়রানিও করছে, আবার তারা বিচারের উপর থেকে আস্থাও হারিয়ে ফেলছে।

উল্লেখ্য, ২০২২ সালের ২৩ মার্চ নিমঘুটু গ্রামের কৃষক অভিনাথ মারান্ডি ও তাঁর চাচাতো ভাই রবি মারান্ডি বিষপান করেন। অভিনাথ রাতেই বাড়িতে মারা যান। আর ২৫ মার্চ হাসপাতালে মারা যান রবি। অভিনাথের বাড়ি থেকে যখন মরদেহ পুলিশ উদ্ধার করছিল তখন পরিবার অভিযোগ করে, বরেন্দ্র বহুমুখী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (বিএমডিএ) গভীর নলকূপ থেকে পানি পাচ্ছিলেন না দুই কৃষক। নলকূপের অপারেটর ও ওয়ার্ড কৃষক লীগের সভাপতি সাখাওয়াত হোসেন তাঁদের পানি না দিয়ে বিষপান করতে বলেছিলেন। এরপর দুজনে ক্ষোভে দুঃখে বিষপান করেন। তবে পরিবারের এমন অভিযোগে প্রথমে পাত্তা দিচ্ছিল না পুলিশ ও প্রশাসন।

 

 

আরপি/আআ



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top