রাজশাহী শুক্রবার, ৩০শে অক্টোবর ২০২০, ১৫ই কার্তিক ১৪২৭


বিশ্বে ৬০ লাখ, বাংলাদেশে আড়াই লাখ নার্স সংকট


প্রকাশিত:
২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ ১৪:৪৯

আপডেট:
২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ ১৫:১৭

ছবি: সংগৃহীত

সারা বিশ্বে বর্তমানে ৬০ লাখ নার্সের ঘাটতি রয়েছে। আর বাংলাদেশে প্রায় আড়াই লাখ নার্স দরকার। করোনাকালে চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় দ্রুতই এ ঘাটতি পূরণ করতে হবে বলে সতর্ক করে দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। সম্প্রতি বার্তা সংস্থা এএফপির খবরে এমনটাই বলা হয়েছে।

নার্সিং নাউ এবং ইন্টারন্যাশনাল কাউন্সিল অব নার্সেসসহ (আইসিএন) জাতিসংঘের অঙ্গ সংগঠন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তৈরি একটি প্রতিবেদনে বলা হয়, বিশ্বজুড়ে যত স্বাস্থ্যকর্মী রয়েছে তার অর্ধেকেরও বেশি হল নার্স।

ওই প্রতিবেদন অনুযায়ী, গোটা পৃথিবীতে এখন নার্সের সংখ্যা ২ কোটি ৮০ লাখ। গত পাঁচ বছরে এই সংখ্যাটা ৪ দশমিক ৭ মিলিয়ন বৃদ্ধি পেয়েছে। কিন্তু তা স্বাস্থ্য ব্যবস্থাকে টিকিয়ে রাখতে যথেষ্ট নয়। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলছে, এই মুহূর্তে বিশ্বের আরও ৫৯ লাখ নার্সের প্রয়োজন।

এদিকে বাংলাদেশেও রয়েছে নার্সের ঘাটতি। দেশে প্রয়োজনের তুলনায় এখনো আড়াই লাখ নার্স কম রয়েছে। বাংলাদেশে বর্তমানে রেজিস্ট্রার্ড নার্সের সংখ্যা প্রায় ৭০ হাজার। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার গাইডলাইন অনুযায়ী, একজন ডাক্তারের বিপরীতে ৩ জন নার্স দরকার। সে হিসেবে বাংলাদেশে আরও আড়াই লাখ নার্স প্রয়োজন। কিন্তু বর্তমানে প্রতিবছর যে পরিমাণ রেজিস্ট্রার্ড নার্স বের হয় তাতে দেশের নার্স সংকট কাটাতে আরও ২০ বছর লেগে যাবে।

দেশে করোনার মধ্যে ঝুঁকি নিয়ে কাজ করতে গিয়ে প্রাণ গেছে ২ সহস্রাধিক নার্সের। দেশের নার্সদের নিয়ে কাজ করা স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন সোসাইটি ফর নার্সেস সেফটি এন্ড রাইটসের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, বাংলাদেশে এ পর্যন্ত কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত নার্স এর সংখ্যা ২৩২০ জন মৃত্যু বরণ করেছেন ১২ জন নার্স।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মহাপরিচালক টেড্রোস আধানম গেব্রয়োসেস এক বিবৃতিতে বলেন, যেকোনো দেশের স্বাস্থ্যসেবা ব্যবস্থার মেরুদণ্ড হলো নার্স। তারা আজ কোভিড-১৯ এর বিরুদ্ধে লড়াইয়ে অনেক সামনে থেকে কাজ করছেন। বিশ্বকে সুস্থ রাখতে তাদের যে সাহায্য প্রয়োজন তা পূরণ করা তাই খুব গুরুত্বপূর্ণ।

 

আরপি/আআ




আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top